জাতীয় দলের জায়গা ‘নোংড়া’ হয়ে গিয়েছে থাকতে চান না খালেদ মাহমুদ

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

ত্রিদেশীয় সিরিজের পর দ্বিপাক্ষিক সিরিজেও শ্রীলংকার কাছে বাজে ভাবে হেরেছে বাংলাদেশ।যার জন্য চারপাশে শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।আর তাতে বেশ চটেছেন টাইগার দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন।শুধু তাই নয়,তার মনে জাতীয় দলের এই জায়গাটা অনেক ‘নোংড়া’ হয়ে গিয়েছে।তাই এখানে আর থাকতে চান না তিনি।

শ্রীলংকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হওয়ার পর আগামী মাসে শ্রীলংকায় শুরু হবে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ।সেই সফরে টাইগার দলের প্রধান কোচ পাওয়ার কোন সম্ভবনা দেখা যাচ্ছে না।তাই বলাই যেতে পারে দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ ও সহকারী কোচ রিচার্ড হ্যালসলের ম্যানেজমেন্টকেই রেখে দেবে বিসিবি।

সোমবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি দলের অনুশীলনের ফাঁকে মাহমুদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল পরের সিরিজেও তার দায়িত্বে থাকার সম্ভাবনা নিয়ে।

সুজন বলেন,“নিদাহাস কাপে বোর্ড ঠিক করবে (দায়িত্বে কে থাকবে)। কারণ বোর্ডই আমাকে এই দায়িত্ব দিয়েছে। কাজ করব না, এই কথা আমি কখনোই করতে চাই না। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, বাঙালি কেউ কাজ করলেই সবচেয়ে বড় সমস্যা। দল হেরে যাওয়ার পরও যে আমি এই দেশে আছি, এটাই বড় কথা। চন্দিকা (হাথুরুসিংহে) যখন প্রথম এলো, আরও বড় বড় কোচ এসেছে, তখনও শুরুতে ফল খারপ হয়েছে। কিন্তু এ রকম হয়নি।”নোংরা জায়গাটা কেমন, সেই ব্যাখ্যা চাওয়া হলে খালেদ মাহমুদ একহাত নিলেন সংবাদমাধ্যমকে।

“অন্য কিছু নয়। বলার কিছু নেই। আপনারাও জানেন, আমরাও জানি। নোংরা বলতে গেলে যে, মিডিয়ায় যেভাবে বলা হয়… আমাদের ক্রিকেটের একটা বড় অন্তরায় মিডিয়াও। আমরা এত ‘ফিশি’ হয়ে যাচ্ছি আস্তে আস্তে, মিডিয়ার কারণে আমাদের ক্রিকেট আটকে আছে কিনা, সেটাও একটা প্রশ্ন এখন আমার কাছে।”

“মিডিয়ায় এত বেশি আলোচনা হচ্ছে… আমার এটা মনে হচ্ছে, এত বছর ধরে ক্রিকেটে আছি, এত গসিপিং, এত কিছু… ঠিক আছে, এসব হবেই, ভালো-খারাপ আসবেই। সবকিছুই আসবে। কিন্তু কিছু কিছু জিনিস নেতিবাচক হয়ে যাচ্ছে আমাদের ক্রিকেটের জন্য।”

এদিকে একটি সূত্রে  জানা গিয়েছে, টাইগারদের কোচ হতে মানা করে দেওয়া জিম্বাবুয়ের প্রাক্তন অধিনায়ক অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের সঙ্গে আবারো যোগাযোগ করেছে বিসিবি। এবং দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্যারি কারস্টেনের সঙ্গে কথাবার্তা বলছে বিসিবি।

 

কমেন্টস