‘খালেদার নির্বাচনের বিষয়ে ইসির কিছু করার নেই’

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিম্ন আদালতে ৫ বছরের কারাদণ্ড হওয়ায় এখন তার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারা না পারা বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কিছু করার নেই বলে জানিয়েছেন ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

আজ বুধবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) পার্লামেন্টারি ডেলিগেশন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বর্তমানে জেলে রয়েছেন- নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন কি-না এ বিষয়ে কোনো কথা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে সচিব বলেন, এ বিষয়ে একজন জানতে চেয়েছিলেন।

সিইসি তাদের বলেছেন, এটি আদালতের বিষয়। আদালত যদি অনুমতি দেন তাহলে ইসির কিছু করার নেই। আর না করলেও ইসির কোনো ভূমিকা থাকবে না। কমিশন সংবিধান ও আইন অনুযায়ী সবকিছু করবে।

তিনি আরও বলেন, তারা আগামী সংসদ এবং রাষ্ট্রপতি নির্বাচন সম্পর্কে জানতে চেয়েছিল। সিইসি তাদের বলেছেন, রাষ্ট্রপতি পদে সংসদ সদস্যরা ভোট দেন। এবার যেহেতু একজন প্রার্থী ছিলেন। তাই বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

আইন অনুযায়ী, ফৌজদারি মামলায় কারও ন্যূনতম দুই বছর কারাদণ্ড হলে তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার অযোগ্য হবেন। খালেদার ৫ বছর কারাদণ্ড হওয়ায় তিনিও অযোগ্য। কিন্তু বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে এবং উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

এর আগে বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে সিইসি কেএম নুরুল হুদার সঙ্গে বৈঠকে বসে ইইউ প্রতিনিধি দল। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পার্লামেন্টারি ডেলিগেশন জিম ল্যামবার্ড এর নেতৃত্বে ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও নির্বাচন কমিশনের ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ও যুগ্ম-সচিব (চলতি দায়িত্ব) এসএম আসাদুজ্জামান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

কমেন্টস