বিশ্ব গণমাধ্যমে খালেদার কারাদণ্ডের খবর 

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুরেদ্ধ দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘিরে আবারো আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম হয়েছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রভাবশালী সব সংবাদমাধ্যম বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আদালতের দেয়া ৫ বছরের কারাদণ্ডের রায় ব্রেকিং নিউজ আকারে প্রচার করেছে।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলছে, দুর্নীতির মামলায় বাংলাদেশের বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ঢাকার আদালত খালেদাকে ওই সাজা দিয়েছেন। রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ঢাকার রাস্তায় খালেদার হাজার হাজার সমর্থককে ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের আন্তর্জাতিক সহায়তা আত্মসাতের অভিযোগ উঠলেও ৭২ বছর বয়সী খালেদা তা অস্বীকার করেছেন।

বিবিসি বলছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী খালেদার বিরুদ্ধে আরো এক ডজনের বেশি মামলা ঝুলে রয়েছে।

তবে দুর্নীতির একই মামলায় খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানকে ১০ বছরের দণ্ড দিয়েছেন আদালত। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দেশটির প্রধান বিরোধী নেত্রী খালেদা জিয়ার রায় ঘিরে বাংলাদেশে সর্বোচ্চ সতর্কতা গ্রহণ করা হয়েছে। বিবিসি বলছে, আগামী ডিসেম্বরে দেশটির জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও কারাদণ্ড হওয়ায় এ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না তিনি।

ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে বিরোধীদলীয় কর্মী-সমর্থকরা।

ভারতীয় সরকারি বার্তাসংস্থা পিটিআই বলছে, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের বিরোধীদলীয় নেত্রী ও দুই বারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে দুর্নীতির মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের মামলায় তিনি এ দণ্ড পেয়েছেন। একই মামলায় খালেদার ছেলে তারেক রহমান ও আরো অন্য চার আসামিকে ১০ বছরের দণ্ড দেয়া হয়েছে।

ভারতীয় প্রভাবশালী দৈনিক দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন বলছে, দুর্নীতির মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী নেত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার বিশেষ একটি আদালত।

এছাড়াও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া, এনডিটিভি, নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, পাকিস্তানি দৈনিক ডন, ডেইলি পাকিস্তান, মার্কিন সংবাদসংস্থা এপি, সিএনএন, দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট, দ্য নিউইয়র্ক টাইমস, বিট্রিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সংবাদমাধ্যমে খালেদার দণ্ডের খবর গুরুত্ব সহকারে প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় একটি মামলা করে দুদক।

গত ২৫ জানুয়ারি রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য আজ (৮ ফেব্রুয়ারি) দিন ধার্য করা হয়। এ মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন ৩২ জন। ১২০ কার্যদিবসের বিচারকার্য শেষ হয়েছে ২৩৬ দিনে। আত্মপক্ষ সমর্থনে সময় গেছে ২৮ দিন। যুক্তি উপস্থাপন হয়েছে ১৬ দিন এবং আসামিপক্ষ মামলাটির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উচ্চ আদালতে গেছেন ৩৫ বার।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় একটি মামলা করে দুদক।

২০১০ সালের ৫ আগস্ট তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশীদ। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়।

কমেন্টস