চট্টগ্রামে শীতের তীব্রতার সাথে বাড়ছে শিশু রোগীর সংখ্যা

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক:

শীতের তীব্রতার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশু রোগীর সংখ্যা। নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কিউলাইটিসসহ শ্বাসজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি রোগী ভর্তি নবজাতক ও শিশু ওয়ার্ডে। এতে জনবল কম থাকায় রোগীর চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসকরা।

এমনিতে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের নবজাতক ও শিশু ওয়ার্ডে সব সময় রোগীর চাপ থাকে বেশি। জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে স্বজনরা তাদের শিশুদের নিয়ে আসেন এখানে চিকিৎসা নিতে। কয়েকদিন ধরে শীতের প্রকোপ বাড়ায়, বেড়ে গেছে শিশু রোগীর সংখ্যা। বর্তমানে স্বাভাবিক সময়ের থেকে কয়েক গুণ বেশি রোগী ভর্তি আছে ওয়ার্ডগুলোতে। শীত জনিত রোগ নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কিউলাইটিস, ডায়রিয়া সহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই ভর্তি হচ্ছে নতুন নতুন রোগী।

চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এই সময়ে নবজাতক শিশুদের হাইপোথার্মিয়া খুব বেশি হতে পারে। তাই এ সময়ে শিশুদের উষ্ণ রাখা খুব প্রয়োজন।

এদিকে জনবল সংকটের কারণে বাড়তি রোগীর চাপ সামলাতে কিছুটা সমস্যায় পড়তে হলে ও আন্তরিকতার কোন কমতি নেই বলে জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

চমেক শিশু ওয়ার্ডের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মো. মোর্শেদ বলেন, নার্স থেকে শুরু করে সকলেই আমাদের খুব সহায়তা করেন। স্বল্পতা থাকলেও কাজ চালিয়ে নিতে হয় আমাদের।

শিশুদের জীবাণু সংক্রামক হত্তয়া থেকে যেমন দূরে রাখতে হবে তেমনি রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলেই ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাত্তয়ার পরামর্শ দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের নবজাতক ওয়ার্ডের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক জগদীশ চন্দ্র দাশ বলেন, এ সময়ে বাচ্চার শ্বাস-প্রশ্বাস থেকে শুরু করে কোনো ধরনের সমস্যা হলে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে আসতে হবে।

শুধু চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নয়, মা ও শিশু হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতালসহ নগরীর বেসরকারি ক্লিনিকগুলোতেও শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

কমেন্টস