রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণের শিকার তরুণীর এবার ‘তথ্য-প্রযুক্তি’ আইনে মামলা

প্রকাশঃ মে ১৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং ক্রাইম ডেস্ক- 

বনানীতে ধর্ষণ মমলার আসামীদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীদের  ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে।এ ঘটনায় তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা করার কথা জানিয়েছেন এক ছাত্রী। ছবি জোর করে তোলা হয়েছে বলে দাবী তার। এখন সামাজিকভাবে হেয় করার জন্য ছবিগুলো ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। সঠিক তদন্ত হলে কে বা কারা এসব ছবি পোস্ট করছে তা বেরিয়ে আসবে।

প্রসঙ্গত, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের অভিযোগ এনে গত ৬ মে বনানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২৮ মার্চ পূর্বপরিচিত সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফ ওই দুই শিক্ষার্থীকে জন্মদিনের দাওয়াত দেয়। এরপর তাদের বনানীর ‘কে’ ব্লকের ২৭ নম্বর সড়কের ৪৯ নম্বরে রেইনট্রি নামের হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

এজাহারে আরও অভিযোগ করা হয়েছে, সেখানে দুই তরুণীকে হোটেলের একটি কক্ষে আটকে রেখে মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ধর্ষণ করে সাফাত ও নাঈম। ধর্ষণ মামলার আসামিরা হলো- সাফাত আহমদ, নাঈম আশরাফ, সাদমান সাকিফ, সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল ও দেহরক্ষী আবুল কালাম আজাদ।

গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার পৃথক দুই মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে বনানীতে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফ আদালতে জবানবন্দী দেন।

Advertisement

কমেন্টস