কাল অপুকে স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে ঘরে তোলার কথা, আজ ‘অসুস্থ’ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি শাকিব!

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৩, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান অসুস্থ হয়ে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে তিনি ভর্তি হন।এদিকে কাল পয়লা বৈশাখেই অভিনেত্রী অপু বিশ্বাসকে স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে ঘরে তুলে নেওয়ার কথা ছিল চিত্রনায়ক শাকিব খানের। কিন্তু তার ঠিক আগের দিনই হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ঢালিউডের ‘কিং খান’।

শাকিব বর্তমানে ল্যাব এইড হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রয়েছেন। তাঁর সঙ্গে একজন নিকট আত্মীয় রয়েছেন। তিনি জানান, শাকিব খান বুকে ও ঘাড়ে ব্যথা অনুভব করছিলেন। তাই তাঁকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। শাকিব খান তাঁর যেকোনো চিকিৎসা ল্যাব এইড হাসপাতালেই করিয়ে থাকেন বলে জানান ওই আত্মীয়।

ল্যাব এইড হাসপাতালের কাস্টমার কেয়ারের সাহারা আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শাকিব খান অসুস্থ হয়ে জরুরি বিভাগে এসেছেন। এখনো ভর্তি হননি। শাকিব খানের ইসিজি করা হচ্ছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাকিবের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও প্রযোজক মো. ইকবাল জানান, আগামী শুক্রবার পয়লা বৈশাখ। ওই দিন জুমার নামাজের পর রাজধানীর নিকেতনের বাসা থেকে অপুকে গুলশানের বাসায় তুলে নেবেন শাকিব।

ইকবাল বলেন, ‘আগামী শুক্রবার বাদ জুমা শাকিব নিজের পরিবার নিয়ে অপুর নিকেতনের বাসায় যাবেন। সেখান থেকে অপুকে তাঁর পরিবারের কাছ থেকে নিয়ে গুলশানে নিজের বাসায় যাবেন। ওই দিন থেকেই তাঁদের আনুষ্ঠানিকভাবে সাংসারিক জীবন শুরু হবে।’

শাকিব খানের এই ঘনিষ্ঠ বন্ধু আরো বলেন, ‘শাকিবের ইচ্ছা ছিল ছেলের প্রথম জন্মদিনে নিজের বিবাহিত জীবন সম্পর্কে সবাইকে জানাবেন। তাই টেলিভিশন চ্যানেলের সরাসরি (লাইভ) অনুষ্ঠানে হঠাৎ অপু ও ছেলেকে ওভাবে দেখে রেগে গিয়েছিলেন শাকিব।’

পয়লা বৈশাখে অপুকে ঘরে তোলার কথা গণমাধ্যমে প্রচারিত হলেও অপুর ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, এ বিষয়ে অপুর সঙ্গে সরাসরি শাকিব খানের কোনো কথা হয়নি।

এর আগে গত সোমবার (১০ এপ্রিল) বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নিউজ২৪-এর সরাসরি অনুষ্ঠানে অপু বলেন, ‘শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়েছিল ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। বিয়ের সময় আমার নাম পরিবর্তন করা হয়েছিল। আমার নাম রাখা হয়েছিল অপু ইসলাম খান। বিয়ের সময় শাকিবের ভাই ও একজন প্রযোজক উপস্থিত ছিলেন। তাঁর কারণেই বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছিল।’

অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি কাল থেকে আজ পর্যন্ত একটা কথাই বলব। আমার সন্তানের স্বীকৃতি, আমার স্বীকৃতি পেয়ে গেছি এবং দশজন মানুষের কাছে আমি মুখ উঁচু করে চলতে পারব। এর থেকে বড়, মানে এর থেকে ভালো বলার আমার আর কোনো ভাষা নেই।’ তিনি বলেন, ‘আমার সন্তান, আমার সংসার, আমার স্বামী, আমার পরিবার এবং আমার সামাজিক মর্যাদা সবকিছু আমি পেয়ে গেছি। আমার এখানে কোনো ষড়যন্ত্র কাজ করবে না, কারণ এখানে আমি খুব বেশি ভালোবাসি আমার পরিবারকে।’

অপু বিয়ের কথা বললেও এই বিষয়টি প্রথমে স্বীকার করেননি শাকিব। পুরো বিষয়টিকে তিনি বাংলা ছবির ইন্ডাস্ট্রি এবং তাঁর তারকা ইমেজকে ধ্বংস করে দেওয়ার বিশাল চক্রান্ত হিসেবে দাবি করেছিলেন।

তবে পরদিন সঙ্গে আলাপকালে শাকিব খান বলেন, ‘চিত্রনায়িকা অপু আমার স্ত্রী আর আব্রাহাম আমারই সন্তান। অপুকে কেউ ভুল বুঝিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার চেষ্টা করেছে। এখন আমাদের সম্পর্ক স্বাভাবিক। গতকাল আমি রাগের মাথায় গণমাধ্যমে অনেক কথা বলেছি।’

Advertisement

কমেন্টস