ঝিনাইদহে কমিউনিটি ক্লিনিকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং নারী ডেস্কঃ

ঝিনাইদহের চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে নজরুল ইসলাম নামে এক স্বাস্থ্য সহকারীর বিরুদ্ধে নারীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে।

আজ সোমবার সকালে এ নিয়ে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ওই নারী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আলীমুদ্দীন ও গোলাম রসুল ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, বেজিমারা গ্রামের ওই নারীকে ফুসলিয়ে চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে নিয়ে যান নজরুল ইসলাম। পরে তার শ্লীলতাহানি করেন। ঘটনাটি তার সঙ্গে থাকা বাচ্চা মেয়েটি দেখে ফেলে বাড়ি এসে সবাইকে বলে দেয়।

জানা গেছে, নজরুল ইসলামের স্ত্রী চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকের হেলথ প্রোভাইডার হিসেবে কর্মরত। সেই হিসেবে নজরুল স্বাস্থ্য সহকারী হয়েও ফিল্ডে না গিয়ে স্ত্রীর পক্ষে চিকিৎসাসেবা দেন। এলাকার একাধিক নারীর অভিযোগ নজরুল ইসলাম ইচ্ছাকৃতভাবে চিকিৎসা নিতে আসা মেয়েদের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন। এতে অনেক নারী ক্ষোভে চিকিৎসা নিতে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।

এদিকে ছুটির দিন কমিউনিটি ক্লিনিকে নিয়ে নারীকে শ্লীলতাহানির ঘটনা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়ছে।

মধুহাটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক আহম্মেদ জুয়েল সোমবার দুপুরে জানান, ঘটনাটি হয়তো তেমন না। ওই নারীর বাচ্চার মাথা কেটে  গিয়েছিল। সেজন্য তিনি চিকিৎসা নিতে আসেন। আমরা নজরুলকে সরিয়ে দিচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, গ্রাম্য পলিটিক্সের কারণে নজরুলের বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচার হতে পারে বলে আমার ধারণা।

অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম জানান, ‘গ্রামের কিছু মানুষের সঙ্গে আমার সামাজিক বিরোধ রয়েছে। তারাই এই মিথ্যা অপবাদ ছড়াচ্ছে।’

সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানা জানান, ‘আমি এধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্তে দোষী হলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

কমেন্টস