রাতারাতি উর্মিলা হয়ে গেলেন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী !

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৬

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ব্যাংককে গিয়ে দেখলেন আপনার অ্যাকাউন্টে এতো টাকা এসেছে যে আপনি বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি এখন। ভাবতেই কেমন লাগছে! বিষয়টা হাস্যকর মনে হলেও এমন ঘটনাই ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের এক  মহিলার সাথে।

রাতারাতি এই অগাধ সম্পদের মালিক হয়েছিলেন, তিনিও চমকে উঠেছিলেন। কারণ স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ায় থাকা ৯৫ হাজার কোটি রুপির মালিকের মাসে রোজগারই যে সাকল্যে তিন হাজার রুপি।

গত শুক্রবার সকালে নিজের প্রায় ছয় মাস ধরে অব্যবহৃত থাকা অ্যাকাউন্টটি হালনাগাদ করাতে গিয়ে উত্তরপ্রদেশের কানপুরের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও গৃহবধূ উর্মিলা যাদবের চোখ চড়কগাছ। এক বছর আগে দুই হাজার রুপি দিয়ে যে অ্যাকাউন্টটি খুলেছিলেন, সেখানে ১৭ সংখ্যার একটি অঙ্ক লেখা। প্রথমে ওই সংখ্যাটির মর্মার্থ বুঝতে পারেননি উর্মিলা। পারবেন কী করে, এত বড় সংখ্যার হিসাব কোনোদিন তো করতে হয়নি তাঁকে। শেষে যে ব্যক্তি গ্যারান্টার হয়ে তাঁর অ্যাকাউন্টটি করিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁর কাছে গিয়ে উদ্ধার করলেন, গত ছয় মাসে ৯৫ হাজার কোটিরও বেশি রুপি ঢুকে পড়েছে তাঁর অব্যবহৃত অ্যাকাউন্টটিতে!

এ আনন্দ অবশ্য বেশিক্ষণ থাকেনি গৃহবধূ উর্মিলার। গ্যারান্টারের পরামর্শেই ব্যাংকে গিয়ে আশ্চর্য এই ঘটনার কথা বলেন। বিস্ময় প্রকাশ করার পর ব্যাংকের কর্তৃপক্ষ জানান ‘ভুল হয়েছে।’ এর চার ঘণ্টার মাথায় দেখেন তাঁর অ্যাকাউন্টটি স্থগিত করা হয়েছে। আর পরদিন শনিবার দেখলেন, তাঁর অ্যাকাউন্টের অঙ্ক নেমে এসেছে দুই হাজারে; যে রুপি দিয়ে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ায় ছয় মাস আগে অ্যাকাউন্ট করেছিলেন উর্মিলা।

এই ‘ভুলটি’ সত্য হলে উর্মিলা হতেন বিশ্বের সেরা ধনী। কারণ ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসাব অনুযায়ী, গেল জুন মাসের শেষে বিশ্বের বর্তমান সেরা ধনী বিল গেটসের সম্পদের পরিমাণ আট হাজার ১৬০ কোটি ডলার, যা ভারতীয় মুদ্রায় রূপান্তর করলে ৯৫ হাজার কোটির অনেক কম হয়।

এদিকে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার কর্তৃপক্ষ এই অদ্ভুতুড়ে ঘটনার ব্যাখ্যা দিতে পারেনি। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদককে ব্যাংকের জনসংযোগ শাখার কর্মকর্তা গিরিধারী শুক্লা জানান, গেল জুন মাসে অপর্যাপ্ত অর্থের জন্য অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার হিড়িকের সময় ব্যাংকের তরফে দরিদ্র কিছু মহিলার অ্যাকাউন্টগুলো টিকিয়ে রাখার জন্য একটি ফান্ড বরাদ্দ করা হয়েছিল। সেই ফান্ডের কিছু রুপি ওই মহিলার অ্যাকাউন্টে গিয়েছে। ‘কিন্তু এত রুপি!’ -প্রতিবেদকের প্রশ্নের জবাবে শুক্লা বলেন, ‘ওটা কল্পিত একটা রুপির অঙ্ক। ভুল কিছু নয়।’

অবশ্য যাকে নিয়ে এত আলোচনা, সেই উর্মিলা যাদব ব্যাংকের সঙ্গে কোনো বিবাদে জড়াতে নারাজ। নিজের ছোট্ট দোকানে বসে তিনি টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদককে জানান, বিল গেটস স্বপ্ন তো নয়ই, ছেঁড়া কাথায় শুয়ে কোটি রুপির স্বপ্ন দেখাও তাঁর সাজে না। ওটা একটা ভুল ছিল বলেই মানেন তিনি। হয়তো দরিদ্রতা থেকে রেহাই পাওয়ার একটা সুখস্বপ্নও!

Advertisement

কমেন্টস