চুলকানিতে অতিষ্ঠ হয়ে বাবা-মাকে হত্যার পর তরুণীর আত্মহত্যা

প্রকাশঃ জুন ২১, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

বাবা-মা’কে খুন করে আত্মহত্যা করেছেন এক তরুণী। সুইসাইড নোটে এর ব্যাখ্যা করে গেলেন। আর সেই কথা সামনে আসার পরে বিস্মিত সবাই।

তীব্র চুলকানির অসুখে ভুগছিলেন ওই তরুণী। আর সে কারণে ঘটে গেল এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, হংকংয়ের বাসিন্দা ওই তরুণীর নাম পাং চিং-ইউ। ঘটনা গত সোমবারের। ওই দিন তিনি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করেন বাবা-মাকে। তারপর নিজে বিষাক্ত গ্যাস সেবন করে আত্মঘাতী হন।

কিন্তু কেন এমন চরম পথ বেছে নিতে হল পাং চিং-ইউকে? জানা যাচ্ছে, তিনি বেশ কিছুদিন ধরে চর্মরোগে ভুগছিলেন। যার ফলে ব্যাপক চুলকানি ও জ্বলুনিতে অস্থির থাকতে হচ্ছিল তাকে। চামড়াজুড়ে বিশ্রী লালচে দাগ। চিকিৎসা চললেও মিলছিল না রেহাই।

নিজের ব্লগে কয়েক দিন আগেই ওই তরুণী লেখেন, তিনি জানতে পেরেছেন, ওই রোগ বংশানুক্রমিক। অর্থাৎ, এই অস্বস্তির জন্য যে তার বাবা-মাই পরোক্ষে দায়ী, সেই ধারণা তার মধ্যে স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। তিনি সে কথা স্পষ্ট করে লিখেছিলেন। জানিয়েছিলেন, এমন চামড়ার অসুখে ভোগা দম্পতির কখনোই উচিত নয় সন্তানের জন্ম দেয়া।

কমেন্টস