প্রিয়ার মতো ‘চোখ টিপ’ মেরে রাতারাতি বিখ্যাত হয়েছেন যারা!

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

হালের ইন্টারনেটের নতুন স্টার এখন প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ার। ত্রিশূরের বিমলা কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী প্রিয়া গুগলের মোস্ট সার্চড সেলিব্রিটি। একটা মাত্র ভিডিওতে চোখের ইশারা, আর তাতেই ঝড় দেশ-বিদেশে। রাতারাতি যার জন্য পাগল তামাম পুরুষ-হৃদয়।

সেই উইঙ্ক কুইন প্রিয়ার মতোই কিন্তু আরও বেশ কয়েকজন এভাবেই তোলপাড় করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া। তবে শুধু প্রিয়াই নয়, রাতারাতি বিখ্যাতদের তালিকায় আছেন এরাও। আসুন তাদের একটু দেখে নেওয়া যাক।

আর্শাদ খান

ছিলেন একজন সাধারণ চা বিক্রেতা। সেখান থেকে লাখো যুবতীর হার্টথ্রব। পাকিস্তানের চা বিক্রেতা আর্শাদ খানের গল্পটা অনেকটা এরকমই। এক ফটোগ্রাফারের সৌজন্যে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যান তিনি। তবে এখন আর চা বিক্রি করেন না। পুরোদস্তুর মডেলিং’ই করেন আর্শাদ।

সাইমা হুসেন মীর

‘রইস’-এর প্রচারে তখন সারা দেশে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন শাহরুখ খান। গিয়েছিলেন সিম্বায়োসিস ইনস্টিটিউট অফ ডিজাইন সংস্থাতেও। ভক্তদের সাথে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলেছিলেন। তারপরে সেটা আপলোড করা হয় শাহরুখ খানের ফেসবুক পেজে। সেই ছবি থেকেই রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে ওঠেন সাইমা হুসেন মীর।

ছবিতে এই যুবতী দাঁড়িয়ে ছিলেন শাহরুখ খানের ঠিক পিছনে। দারুণ সৌন্দর্য এই কাশ্মীরি কন্যাকে পাদপ্রদীপের আলোয় নিয়ে আসে। নেট দুনিয়া তাকে চেনে ‘জলপাইরঙের জামা পরা মেয়েটি’ নামে।

ওমর বোরকান আল গালা

সোশ্যাল মিডিয়ায় সবচেয়ে সুপুরুষ তরুণের আখ্যা পেয়েছিলেন ওমর। সৌদি আরবের এই বাসিন্দার ফেসবুক ফলোয়ার সংখ্যা ৮ লাখের বেশি।

নেপালি সবজিওয়ালি

আসল নাম জানা যায়নি তার। কিন্তু ফটোগ্রাফার রূপচন্দ্র মহারাজনের দৌলতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল নেপালের এক সবজিওয়ালির ছবি। তবে তার নাম ধাম ঠিকানা কিছুই জানা যায়নি।

কমেন্টস