জীবনের গল্প!

প্রকাশঃ জুন ১১, ২০১৭

সোহেল তাজ-

আমি প্রায় আমার স্যার এবং ম্যামদের খুব প্যারা দেই আবার বকাও খাই। এইতো সেদিন লিফটের মধ্যে বন্ধুদের সাথে দুষ্টামি করতে ছিলাম ম্যাম আমার দিকে চোখ বড় করে তাকিয়ে রইলো আমি তো চুপ। লিফট থেকে বের হয়ে ক্লাসে যেতে না যেতে ম্যাম শুরু করে দিলো নসিয়াত করা হুমম ক্লাসে দুষ্টুমি করেন ভালো কথা এই জন্য লিফটে ও দুষ্টুমি করবেন এটা ঠিক নাহ। আপনি এখন বড় হইছেন আবার রাজনীতিও করেন শুনছি তাহলে পাবলিক প্লেসে দুষ্টুমি করা যাবে না কথাটা মাথা রাইখেন।

আরো কতো কিছু আমি তো চুপ মনে মনে রাগ ও উঠতেছে আবার হাসিও পাচ্ছে অবশেষে ম্যাম ক্লাস শুরু করলো আমি চুপ করে মাথা নিচু করে বসে ম্যামের লেকচার শুনতেছি। একটু পর পর ম্যাম বললে সোহেল মন খারাপ কেন? আমি বললাম কই ম্যাম না তো আমার মন খাপার না। ম্যাম কিছুতেই বিশ্বাস করলো না আমার কথা বার বার শুধু জিজ্ঞেস করে মন খারাপ কেন আমি বকা দিয়েছি এই জন্য?

আমি তো আপনার ভালোর জন্যই কথাগুলো বলেছি, আমি একটু হেসে বললাম না ম্যাম আমি আপনার কথায় একটুও মন খারাপ করিনি। ম্যাম যা বলছে কিছু কথা আমি আমার ডায়েরিতে লিখে রাখলাম। ম্যাম বললো- আপনার চেহারাই দেখে মনে হচ্ছে আপনি মন খারাপ করে আছেন আর ডায়েরিতে কি লিখতেছেন? আমি বললাম কিছু নাহ ম্যাম। ম্যামও হেসে বললেন ও আচ্ছা আমার কথাগুলো দিয়ে কি গল্প বা কবিতা লিখছেন আমি বললাম না ম্যাম। অবশ্য কিছুদিন আগে ম্যাম আমাকে একদিন ক্লাস থেকে বের করে দিয়েছিলো। কারণটা কি শুনবেন হুম বলছি, কারণটা হচ্ছে আমি মন খারাপ করে বসে আছি ম্যাম আমাকে কয়েকবার ওয়ার্নিং দিয়েছিলো মুড ঠিক করতে আমি শত চেষ্টা করেও মুড ঠিক করতে না পারায় ম্যাম বললো আপনি ক্লাস থেকে বের হয়ে যান আপনার জন্য অন্যদের সমস্যা হচ্ছে আমি সাথে বের হয়ে গেলাম।

একটু পর বন্ধু সজীব এসে বললো তুমি ক্লাস থেকে বের হয়ে গেলা কেন? আমি বললাম কেন ম্যামই তো বললো বের হয়ে যেতে তাই বের হয়ে গেলাম। সজীব বললো তুমি জানো ম্যাম খুব কষ্ট পেয়েছে তুমি বের হয়ে আসছো এই জন্য। আরে বোকা ম্যাম তো তোমাকে সত্যি সত্যি বের হতে বলেনি শুনো তুমি পরের ক্লাসে যাবা এবং ম্যামকে সরি বলবা আমি বললাম ঠিক আছে। বন্ধু সজীব এবং ফাহাদের কথা মতো পরের ক্লাসে গেলাম বললাম ম্যাম সরি সেদিন ক্লাস থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য। ম্যাম বললো আপনি সেদিন কাজটা ভালো করেননি আমি আপনার আচরণে কষ্ট পেয়েছি। আমি আবার ম্যামকে বললাম সরি। এবার ম্যাম বললো ঠিক আছে আর এমন করবেন নাহ মনে থাকবে? আমি বললাম জ্বি ম্যাম আর এমন করবো না।

আসলে এই কথাগুলো বলার কারণ হচ্ছে বাবা-মা এবং শিক্ষক-শিক্ষিকা আমাদের যা বলেন আমাদের ভালোর জন্ ই বলেন, অামরা এখন যে সময়টা পার করতেছি তারা সেটা অাগেই মোকাবিলা করে অাসছেন এবং সব সময় ভালো উপদেশ দিয়ে থাকেন অনুগ্রহ করে কেউ শিক্ষকদের সাথে খারাপ ব্যবহার করবেন না। শাসন করা তারই সাজে সোহাগ করে যে।

ছোট বেলা থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত আমার যতো শিক্ষক-শিক্ষিকা রয়েছে তাদের প্রত্যেকের জন্য আমার পক্ষ থেকে বিনম্র শ্রদ্ধা এবং হাজার বছর বেঁচে থাকুক সবাই।

কমেন্টস