রানা প্লাজা থেকে বলছি (কবিতা)

প্রকাশঃ এপ্রিল ২৪, ২০১৮

মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু )

এত লাশ ! এত লাশ ! 
আমার চার পাশ। 
মা তুমি কান্না – করছো না কেন ?
তোমার শরীর শীতল হচ্ছে ! 
আমার পা ভেঙ্গে গেছে , 
তোমার দেহের সাথে।

আমি শিশু মায়ের পেটে , 
ভয়ে আছি লাশের দেশে । 
মায়ের শরীরে পঁচন ধরেছে , 
এত লাশের মাঝে।

মা তুমি ভালো করেছো !
মৃত্যু আকাশে এসে। 
এখানে কোন কষ্ট হবে না, 
তোমার দেহের মাঝে।

দয়াহীন মানুষ এরা , 
টাকা ওদের বাবা-মা । 
জীবন ওদের আলোহীন, 
টাকার মিছিলে।

ভালো হচ্ছে মরে যাবো , 
মায়ের পেটের দেশে।
মা আমার লাশ হয়েছে , 
রানা প্লাজার নিচে।

এত লাশ ! এত লাশ !
ইট বালুর নিচে।
আমি আছি মায়ের দেশে , 
মৃত্যুদিন গুণতে।

আমি মরে যাবো ২৪ ঘন্টার পর, 
রানা প্লাজা আমাকে বাঁচতে দিলো না  ! 
সবুজের নীল আকাশের মাঝে।
ওরা চায় টাকার মেলা , 
প্রাণ ওদের হাতের ময়লা।

তোমরা কোথায় এদিকে এসো , 
আমি রানা প্লাজার নিচে । 
মায়ের মৃতদেহের দেশে, 
তোমরা শুনতে পাচ্ছো !

হা হা হা হা হা , 
এরা সবাই টাকার পাগল । 
আমার কথা শুনবে না, 
ইট লোহার মাঝে।

আমার দেহ গেলো গুলে, 
মায়ের পেটের দেশে।
মা,  মা,  ও মা , 
এত অন্ধকার চার-পাশ ।

চলে গেলাম আলোহীন, 
নীরবতার এক বিশাল দেশে।
এই তো আমি মৃত্যুর আকাশে ! 
তোমরা ভালো থেকো, 
টাকার পাগল মানুষ।

কমেন্টস