‘নেপালের আকাশে কান্নার মিছিল’

প্রকাশঃ মার্চ ১৩, ২০১৮

মোঃ গোলাম মোস্তফা

পাখির মতো উড়ছি মোরা
নেপালের আকাশের বুকে।
পাইলট বাবু নামতে চায়
সকলের জীবন বাঁচাতে।

আমরা সবাই চিৎকার করছি
বাঁচতে চাই , বাঁচতে চাই ।
এমন করে মরবো কেন
নেপালের আকাশের বুকে।

নিরব হয়ে দোয়া করেন 
বাঁচতে জেনো  পায়ই
পাইলট বাবু চেষ্টা করছে
প্রাণ জেনো না যায়।

চার পাশ আজ কান্নার মিছিল 
এত কেন শোনা  যায়।
বাঁচতে চাইলে কি বাঁচা যায় 
পৃথিবীর আকাশের বুকে।

হঠাৎ শব্দ !  আগুনের মিছিল !
বাঁচতে তোমাদের দিবো না। 
জীবন নিতে এসেছি আমি , 
কান্না তোমরা করো না ।

ওমা তুমি কোথায় !
আমার দেহ গেলো পুড়ে
ডাকতে তোমায় পারছি না।
এত কষ্ট !  এত জ্বালা !
বলতে কাউকে পারছি না ।

বাবা আমাকে বাঁচাও !  
তোমার সন্তান আগুনের বুকে, 
নৃত্য করছে বাঁচার জন্য।
আমার চোখে তোমার ছবি, 
ক্ষমা করো আমায় । 
আগুনের বুকে দিলাম প্রাণ, 
দেহ আমার কয়লা হলে 
রেখো তুমি মায়ের কোলে
মা আমায় দেখবে ছুঁয়ে।
খোকা তার কয়লা হয়ে
রয়েছে তার কোলে।

নেপালের আকাশে কান্নার মিছিল, 
এইতো আমরা লাশ হয়েছি। 
আরো কোন কান্নার মিছিল, 
শুনবে না নেপালের আকাশ।

লাশ ভাই !  এত নিরব কেন ? 
আমার কষ্ট হচ্ছে,  মায়ের জন্য। 
আমি ও লাশ, তুমি ও লাশ। 
কষ্ট করে লাভ কি আর বলো,  
আমরা সবাই লাশ হয়েছি 
নেপালের আকাশের নিচে। 
দিনের আলো আসবে যাবে
লাশ হয়েছি কপাল দোষে
নেপাল দেশে এসে।

কমেন্টস