‘আমাকে চিনতে পেরেছেন?’

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭

মামুনুর রশিদ রাজিব, স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি-

আমি আরাকান থেকে আগত এক ক্লান্ত পথিক
যার কপালে লেগে আছে রোহিঙ্গা নামক অভিশাপ,
চোখে মুখে লেগে আছে মৃত্যূর কাল ছাপ
আমি সেই রোহিঙ্গা বলছি।

আমার জন্ম কোন জঙ্গলের ধারে কিংবা ধানের ক্ষেতে,
আমার নাড়ীটা ছেড়া হয়েছে হাত দিয়ে টেনে!
সন্তান প্রসব করে আমার মাকে, ক্ষত-বিক্ষত শরীর নিয়ে ছুটতে হয়েছে প্রাণ বাচাঁনোর দায়ে।
আমি আরাকানবাসী, আমি রোহিঙ্গা
আমাদের জন্মই হয় অন্যায়ভাবে মরে যাবার জন্যে
আমাকে চিনতে পেরেছেন?

চিনতে পেরেছেন,
যাদের শেষ সম্বল টুকুও লুট করা হয় ঝড়ের মত
যাদের বাড়ীগুলো পুড়িয়ে দেয়া হয় দাবানলের মত,
যাদের রক্তে তৃষ্ণা মেটে, কারো কারো!
আমি সেই বাস্তু হারা রোহিঙ্গা বলছি
আমাকে চিনতে পেরেছেন ?

কোন এক নদীর ধারে কাদামাটিতে মুখ থুব্রে পরে থাকা আমি এক মৃত-শিশু,
জঙ্গলের পাশে পরে থাকা তরুণীটি আমার বোন
বাড়ির আঙ্গিনায় পরে থাকা  মুন্ড কাটা লোকটি আমার বাবা
আমি আরাকানবাসী, আমি রোহিঙ্গা
আমাকে চিনতে পেরেছেন?

আমাকে চিনতে পেরেছেন?
আমাদের পেটে অন্নের পরিবর্তে ঢুকে যায় স্ব-দেশের বুলেট,
আমাদের পিঠের চামড়া তুলে নেয়া হয় প্রাণবন্ত দেহ থেকে
দেশের মাটিতেআমাদের মৃত্যূ নিশ্চিত করতে
সীমান্তে রাখা হয় মাইন পুতে।
আমি সেই হতভাগা রোহিঙ্গা বলছি
আমাকে চিনতেপেরেছেন ?

আমাদের মৃত্যু কারো হৃদয়কে পারেনি কাঁপাতে
আমাদের মৃত্যুতে বিশ্ব-বিবেক থাকে ঘুমিয়ে,
আমাদের মৃত্যুতে, মৃত্যুরাই আসে এগিয়ে!
আমি আরাকানবাসী, আমি রোহিঙ্গা
আমাকে চিনতে পেরেছেন?

Advertisement

কমেন্টস