কালের বিবর্তনে যে খাবার গুলো হারিয়ে যাবে

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

কালের বিবর্তনে অনেক খাবারই হারিয়ে যায়। এখন যেসব খাবার খুব প্রচলিত ৫০ বছর পর সেগুলোর কথা হয়তো শুধু শোনাই যাবে, দেখা বা খাওয়ার ভাগ্য হবে না।এমন অনেক খাবার রয়েছে যেগুলো কয়েকবছর পর হারিয়ে যাবে এমনটাই আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

চলুন দেখে নিই সেই খাবারগুলো-

চীনে বাদাম: এই বাদামের মূল ফলন হয় দক্ষিণ আমেরিকায়। কিন্তু, গত ৭ বছরে এর উৎপাদন কমে গেছে প্রাকৃতিক কারণে। মনে করা হচ্ছে, আগামী ১০ থেকে ১২ বছরের মধ্যেই হারিয়ে যাবে এই ‘টাইমপাস’।

কমলালেবু: ‘সাইট্রাস গ্রিনিং ডিজিস’ নামে এক ধরনের রোগে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বিশ্বজুড়ে কমলালেবুর গাছ। যে কারণে কমে যাচ্ছে শীতকালের এই ফল।

ওয়াইন: যে বিশেষ ধরনের আঙুর দিয়ে ওয়াইন তৈরি হয়, তা গাছ থেকে তোলা হয় বর্ষার পরে। কিন্তু, আবহাওয়ার পরিবর্তনের ফলে অল্পবর্ষণ ও খরার জন্য এই আঙুরের ফলন কমছে প্রতি বছরই।

মেপল সিরাপ: এই সিরাপ তৈরি করতে রাতে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা ও দিনে হালকা গরম তাপমাত্রার প্রয়োজন হয়। কিন্তু, বর্তমানে গ্লোবাল ওয়ার্মিঙের ফলে সঠিক তাপমাত্রা পাওয়া যায় না।

কফি: ২০৮০ সালের মধ্যে শেষ হয়ে যেতে পারে কফি বিনসের ফলন। কারণ সেই গ্লোবাল ওয়ার্মিং।

কাবলি ছোলা: প্রতি আউন্সের জন্য প্রায় ৭৬ গ্যালন পানির প্রয়োজন। কিন্তু, বর্তমানে আবহাওয়ার কারণে এর ফলন কমেছে প্রায় ৪০ শতাংশ।

মধু: গত ১০ বছরে মৌমাছির প্রজনন কমেছে ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ। তাই আগামী কত দিন মধু পাওয়া যাবে তা জানা নেই।

কলা: ‘ট্রপিক্যাল রেস ৪’ নামে এক ধরনের জীবাণুর ফলে বিশ্বজুড়ে নষ্ট হচ্ছে কলা।

চকোলেট: রিসার্চ বলছে, ২০৫০ সালের মধ্যে বাজার থেকে হারিয়ে যাবে এই সুখাদ্য। কারণ কম বৃষ্টির জন্য ন্যাচুরাল চকোলেটের ফলন কমে যাচ্ছে।

কমেন্টস