১০০০ টাকাতেই ঘুরে আসতে পারেন এমন ৭টি জায়গা

প্রকাশঃ অক্টোবর ২৩, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ঘুরতে কার না মন চায়। আর তা যদি হয় কম খরছে তাহলে তো আর কোন কথাই হয় না। তেমনি কিছু জায়গার কথা তুলে ধরা হল-

ধরমশালা: হিমাচল প্রদেশের কাংরা ভ্যালিতে অবস্থিত এই ছবির মত সুন্দর জায়গা। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য অসাধারণ। প্যারা-গ্লাইডারদের জন্য একেবারে আদর্শ জায়গা। এখানে দিনে ২০০ টাকা দরেও হোটেলের রুম পাওয়া যায়।

পার্বতী ভ্যালি: হিমাচলের কুলুতে অবস্থিত এই উপত্যকা। অ্যাডভেঞ্চার প্রেমীদের দারুণ পছন্দের। রয়েছে মনোরম আবহাওয়া, খোলামেলা গ্রাম আর পার্বতী নদী। রয়েছে মনোরম সব ঝর্ণা। ক্ষীরগঙ্গা নামে একটি উষ্ণপ্রস্রবণও রয়েছে। ভাল ভাল রেস্তোরাঁও মিলবে সহজেই। দিন প্রতি খরচ এখানে ৬০০ টাকার মত।

মেঘালয়: ভারতের সবথেকে বেশি বৃষ্টি হয় এই অঞ্চলে। উত্তর-পূর্বের অসাধারণ জায়গা এটি। শিলং-এর ঝর্ণার দেখার মত, রয়েছে প্রাকৃতিক সেতু, ট্রেকিং-এর ব্যবস্থা। অসাধারণ সব গেস্ট হাউস আছে এখানে। চেরাপুঞ্জিতে ‘বাই দ্য ওয়ে’ নামে একটি হস্টেল রয়েছে, যেখানে ২৫০টাকাতেই ঘর পাওয়া যায়।

গোকারণ: কর্ণাটকের উত্তর কন্নড়ে অবস্থিত গোকারণ। শিব মন্দিরের জন্য বিখ্যাত এই জায়গা। রয়েছে পরিষ্কার সমুদ্র সৈকত, নিরিবিলি জায়গা। বহু হোটেল ও গেস্ট হাউস রয়েছে। তার মধ্যে ওম বিচের নমস্তে লজ বিখ্যাত। সব মিলিয়ে একদিনের খরচ ১০০০ টাকা।

জয়সলমীর: ভারতের সোনালি শহর হিসেব বিখ্যাত এই শহর। মরুভূমির এই শহরে রয়েছে আকর্ষণীয় হাভেলি, জৈন মন্দির, রহস্যজনক সব গ্রাম। এখানকার গাদিসার লেক বিখ্যাত। এখানে মোটামুটিভাবে সারাদিনের খরচ ১০০০ টাকার মত।

লাদাখ: ভয়ঙ্কর কিন্তু সুন্দর এই জায়গা। প্রাকৃতিক দৃশ্যের কোনও তুলনা নেই। সীমান্তবর্তী এই জায়গায় গেলে চোখ জুড়িয়ে যাবে। নানা ধরনের দামে হোটেল বা গেস্ট হাউস পাওয়া যায় এখানে। মাস্টারিগুলিতে কম দামে থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। সব মিলিয়ে সারাদিনের খরচ ১২০০ টাকার মত।

স্পিতি: ছোট তিব্বতও বলা হয় এই জায়গাকে। হিমালয়ের কোলে রয়েছে এই উপত্যকা। ট্রেকিং কিংবা জিপ সাফারির ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। একাধিক গেস্ট হাউস রয়েছে এখানে। এছাড়াও, গ্রামের বাড়িগুলিতে কম দামে ভাল থাকা-খাওয়া বন্দোবস্ত পাওয়া যায়। দিনের খরচ পড়বে ৯০০ টাকা।

কমেন্টস