যে ১০টি গুণ একজন সত্যিকারের জীবনসঙ্গীর মধ্যে থাকে

প্রকাশঃ অক্টোবর ২৮, ২০১৬

বিডিমর্নিং ডেস্ক- 

ভালোবাসা এমন একটি আবেগ যা হুট করেই মনে চলে আসে। কিছু জিনিস বুঝে উঠার আগেই একজন আরেকজনকে ভালোবেসে ফেলেন। একটি ভালোবাসার সম্পর্ক কখনো বুঝে শুনে এবং বিচার বিশ্লেষণ করে হয় না। কিন্তু পরে ধীরে ধীরে যখন বোঝার চেষ্টা করেন তখন অনেক কিছুই বিচার বিশ্লেষণের সময় চলে আসে। তখন দুটি বিষয় ঘটে। প্রথমত, ভালোবাসা আরও বেড়ে যায়, কিংবা দ্বিতীয়ত মনের টান কিছুটা কমে আসে।

আপনি যদি সবসময় সব বিষয় ধরতে যান তবে সম্পর্কে টান তো কমবেই। তাই শুধু কিছু বিষয় লক্ষ্য করুন। আর এই বিষয়গুলোই আপনাকে বলে দেবে আপনি আপনার সঠিক জীবনসঙ্গী বেছে নিয়েছেন।

জেনে নিন একজন সত্যিকারের জীবনসঙ্গীর মধ্যে যে ১০টি গুণ থাকে-

১। আপনি আপনার সঙ্গীর প্রতি দুর্নিবার আকর্ষণ বোধ করেন

যদি একে অপরের জন্য একেবারে পারফেক্ট হয়ে থাকেন তবে আপনারা নিজেদের মধ্যে একপ্রকার অদ্ভুত আকর্ষণ বোধ করবেন। এই আকর্ষণ কখনোই কমবে না। বরং এটি বাড়তেই থাকবে। যত দিন যাবে এই আকর্ষণ আপনাদের একে অপরের সাথে বেঁধে রাখবে।

২। আপনাদের পছন্দ এবং মানসিকতার মধ্যে অনেক মিল থাকবে

আপনারা দু’ধরনের মানুষ হবেন ঠিকই কিন্তু আপনাদের চিন্তাভাবনা ও পছন্দের মধ্যে অনেক মিল থাকবে। এতে করে আপনাদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে তর্ক ও মনোমালিন্য আপনাআপনি কমে আসবে। পছন্দের মধ্যে মিল থাকাটাও আপনাদের কাছাকাছি ধরে রাখবে।

৩। আপনার সঙ্গী আপনার লুকোনো প্রতিভা খুঁজে বের করতে পারবেন

আপনার জন্য যিনি একেবারে পারফেক্ট জীবনসঙ্গী তিনি আপনার ভেতরের এমন কিছু দিক আবিষ্কার করবেন যা সম্পর্কে আপনি নিজেও অবগত নন। আপনার সামনে আপনাকেই নতুনভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন তিনি। তিনি আপনার মানসিক শক্তিকে আরো উন্নত করে দেবেন।

৪। আপনার সকল দোষ উপেক্ষা করে তিনি আপনাকে একইভাবে ভালোবাসবেন

প্রথমেই একজন অপরজনের সব কিছু জেনে যাওয়া যায় না। আস্তে আস্তে চিনতে থাকলে অনেক কিছুই বের হয়। অনেক খারাপ দিক এবং দোষও উন্মুক্ত হয় একে অপরের সামনে। কিন্তু যিনি এসকল খারাপ দিক এবং দোষ জেনেও আগের মতোই একইভাবে ভালোবাসবে, তিনিই আপনার জন্য সঠিক।

৫। সবসময় আপনার কথা চিন্তা করেই কাজ করবেন

নিঃস্বার্থ ভালোবাসা তখনই হয় যখন নিজের প্রয়োজন এবং পছন্দের আগে সঙ্গীর কথা মাথায় চলে আসে। সঙ্গী কি পছন্দ করেন তা নিয়ে চিন্তা মনে চলে আসে। যিনি এই কাজটি করতে পারবেন তিনিই আপনার জন্য পারফেক্ট।

৬। আপনার মনের কথা বুঝে নেয়ার ক্ষমতা রয়েছে তার মধ্যে

প্রতিটি মানুষের আলাদা ধরণের কিছু প্রয়োজন থাকে, মনের ইচ্ছা থাকে। আপনার সঙ্গী আপনার এই না বলা কথা, না বলা প্রয়োজনও খুব ভালো বুঝে নিতে পারেন। আপনি কি চাচ্ছেন তা বুঝে নেয়ার ক্ষমতা যদি তার মধ্যে থাকে তাহলে আপনি বুঝবেন আপনি সঠিক মানুষটির দেখা পেয়েছেন।

৭। তিনি শুধু ভালোবাসা ছাড়া আপনার কাছে অন্য কিছুই চান না

তার কাছে আপনার ভালোবাসা সব কিছুর ঊর্ধ্বে। তিনি এই কথাটি মানেন যে আপনি তার জীবনে আসার পর থেকে তার জীবন অনেক বেশি আনন্দময় হয়েছে এবং তার জীবনে সুখের কারণ হিসেবে তিনি আপনাকেই সমাদর করেন। এই ধরণের মানুষজন সম্পর্কের ক্ষেত্রে একেবারে পারফেক্ট।

৮। সম্পর্কে আঁচ আসতে পারে বলে ইচ্ছে করেই তিনি তর্কে হেরে যান

এমন মানুষ অনেক রয়েছে যিনি একটি তর্ক টানতে থাকলে সম্পর্কে সমস্যা হতে পারে মনে করে ইচ্ছে করেই থেমে যান। আপনার সঙ্গীর মধ্যে এই গুনটি থাকলে তাকে কখনোই হারিয়ে ফেলবেন না। কারণ তিনি সম্পর্কের মূল্য বেশ ভালো করেই বোঝেন।

৯। আপনারা একই ধরণের জীবনযাপন করতে চান

অনেকেই ভেবে থাকেন ভবিষ্যতে এমনভাবে জীবন কাটাবেন, একটি ছোটো ঘর ইত্যাদি। জীবনের লক্ষ্য অনেকেই আগে থেকে ঠিক করে রাখেন। আপনার সঙ্গী কি আপনার মতোই একটি জীবন চান, আপনাদের জীবনের লক্ষ্যের মধ্যে কি অনেক বেশি মিল? তাহলে বুঝে নেবেন আপনি দেখা পেয়েছেন মনের মানুষটির।

১০। আপনার সঙ্গী অনেক বেশি বিশ্বস্ত

সম্পর্কে জড়ানোর পর থেকে তিনি এমন কিছুই করেননি যা আপনার মনে বিন্দুমাত্র সন্দেহের সৃষ্টি করে কিংবা এমন কোনো কিছুই তার মধ্যে নেই যা নিয়ে আপনি সন্দিহান। যদি আপনার সঙ্গী এমনই হয়ে থাকেন যাকে আপনি ১০০% বিশ্বাস করতে পারেন তবে তিনিই আপনার জন্য সঠিক জীবনসঙ্গী।

Advertisement

কমেন্টস