কাপড়ের রঙ দীর্ঘদিন উজ্জ্বল রাখার প্রাকৃতিক উপায়

প্রকাশঃ আগস্ট ২৯, ২০১৬

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

পছন্দের রঙিন জামাটি যখন প্রথম ধোয়ার পরই বিবর্ণ হয়ে যায়, তখন নিশ্চয়ই খুব খারাপ লাগে। রঙ নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে অনেকে রঙিন দামী জামাটি দীর্ঘদিন না ধুয়েই ব্যবহার করেন, যা মোটেই ঠিক নয়। এছাড়াও ক্রমাগত ধোয়ার ফলে বেশিরভাগ কাপড়েরই রঙ আস্তে আস্তে মলিন হয়ে যেতে থাকে। বিশেষ করে লাল, নীল ও সবুজ রঙের সুতি কাপড়ের রঙ দ্রুত নষ্ট হয়। তাই এমন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান বেছে নিন যা কাপড় ধোয়ায় ব্যবহার করলে রঙিন পোশাকটির  রঙ একই রকম উজ্জ্বল থাকবে।

জেনে নিন সেই উপাদানগুলো সম্পর্কে-

১। ভিনেগার

ওয়াশিং মেশিনে রঙিন কাপড় ধোয়ার সময় ডিটারজেন্টের সাথে এক কাপ ভিনেগার দিয়ে দিন। ভিনেগার কাপড়ের রঙ স্থায়ী হতে সাহায্য করে এবং ডিটারজেন্টের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে কাপড়কে রক্ষা করে। আর ধোয়ার পর ভিনেগারের গন্ধও চলে যায়।

২। লবণ

নতুন সুতি কাপড় প্রথম বার ধোয়ার আগে এক বালতি পানিতে আধা কাপ লবণ মিশিয়ে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ডিটারজেন্ট বা সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে কাপড়ের রঙ নষ্ট হবে না এবং রঙ ছড়িয়েও যাবে না।

৩। বেকিং সোডা

বেকিং সোডা কাপড়ের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। কাপড় ধোয়ার সময় ওয়াশিং মেশিনে বা এক বালতি পানিতে আধা কাপ বেকিংসোডা দিয়ে দিন। এতে কাপড়ের রঙ ঠিক থাকবে।

প্রয়োজনীয় কিছু টিপস

কাপড় ধোয়ার কিছু সহজ নিয়ম যদি মেনে চলা হয় তাহলে পোশাকের উজ্জ্বলতা ঠিক থাকার পাশাপাশি পোশাকটি টিকবেও অনেক দিন। টিপস গুলো হলো –

১। বিভিন্ন রঙ এর কাপড় কখনোই একসাথে ভেজাবেন না।

২। সাদা কাপড়ের সাথে রঙিন কাপড় ভেজাবেন না।

৩। নতুন এবং রঙ উঠতে পারে এমন কাপড় ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধোবেন।

৪। সব সময় কাপড় উল্টো করে (ভেতরের দিক বাহির করে) ধোয়া ভালো।

৫। কড়া রোদে কাপড় বেশিক্ষণ শুকালে কাপড়ের রঙ নষ্ট হয়ে যায়।

৬। ধোয়ার পর কাপড় খুব বেশি মোচড়ানো উচিত না।

৭। ব্রান্ডের পোশাকের লেবেলে পোশাকটি কীভাবে ধুতে হবে তা উল্লেখ করা থাকে। তাই পোশাকটি ধোয়ার আগে একটু সময় নিয়ে লেবেলের নির্দেশনাটি পড়ে নিন।

কমেন্টস