ভ্রমণে যেতে সতর্ক থাকুন এই বিষয়গুলো

প্রকাশঃ জুন ২২, ২০১৬

বিডিমর্নিং ডেস্ক – 

ভ্রমণ মনের শান্তির একটি ব্যাপার।ভ্রমণের দ্বারা মনের বাঁধা বিপত্তি কেটে গিয়ে সাধারণ জীবনে কিছুটা স্বস্তি। কিন্তু ভ্রমণের সিদ্ধান্ত নেয়ার পর কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হয়।

আসুন জেনে নেই –

১. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অতিরিক্ত শেয়ারিং

ভ্রমণে গিয়ে ছবি তুলতেই পারেন। এসব ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করাও অস্বাভাবিক নয়। তবে অতিরিক্ত ছবি পোস্ট করলে হিতে বিপরীত হতে পারে। দেখা যাবে, অনেকেই এমন সব মন্তব্য করেছে, যা আপনাকে প্রচণ্ড কষ্ট দেবে।

২. ঘুরতে গিয়ে পেশাদার কাজ
পেশাদার কাজ মাথায় নিয়ে ভ্রমণে যাবেন না। খুব বিপদে না পড়লে অভ্যাসবশত ই-মেইল দেখাও ঠিক নয়। এতে অযথা আয়েশি মেজাজটা বিগড়ে যায়। কাজের পেরেশানি ঘাড়ে চেপে বসে।

৩. অস্বাস্থ্যকর খাবার
ঘুরতে গেলে এটা-ওটা খেতে মন চায়। যেখানে যাচ্ছেন সেখানকার স্থানীয় খাবার চেখে দেখতে ইচ্ছা করে। কিন্তু স্বাস্থ্যের সঙ্গে আপস করা উচিত নয়। এতে হজমের সমস্যা ঘটে যাবে। ঘুরতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়বেন। সুস্থ না থাকলে ভ্রমণই বৃথা।

৪. পর্যাপ্ত পানি না খাওয়া
আবহাওয়া যেমনই থাক, ইচ্ছা করুক বা নাই করুক, দেহে পানির অভাব ঘটতে দেবেন না। দেহ পানিশূন্য হলেই বিপদ। তা ছাড়া ভ্রমণ মানেই ঘাম আর ক্লান্তি। তাই ঘন ঘন লেবু-পানি, বাটার মিল্ক, ডাবের পানি এবং সতেজ ফলের শরবত খান।

৫. না ঘুমানো
শরীরের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত করতে ঘুম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এটি ছাড়া দেহের শক্তি ফিরে আসে না। পরিশ্রান্ত ও অবসন্ন দেহে প্রাণশক্তি ফিরে আসে স্বাস্থ্যকর ঘুমের মাধ্যমে।

৬. রোমাঞ্চ খুঁজে বেড়ান
গবেষণায় দেখা গেছে, প্রকৃতির কাছাকাছি গেলে মানুষের মনটা স্থিত হয়ে আসে। তখন মনে আলস্য ভর করে। কিন্তু এ জন্য হোটেলকক্ষে ঝিমিয়ে বসে থাকা যাবে না। কিংবা ঝোঁকের বশে অ্যালকোহল বা অন্যান্য মাদকে ভেসে যাওয়াও চলবে না। এতে আপনার পুরো ভ্রমণই ভেস্তে যেতে পারে।

কমেন্টস