ভারতে ইসলামিক ব্যাংক খোলার অনুমতি দিতে নারাজ RBI

প্রকাশঃ নভেম্বরে ১৩, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ভারতে চালু হবে না ইসলামিক ব্যাংক। পরিষ্কার জানিয়ে দিল রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া।

গত প্রায় এক দশক আগে থেকে ভারতে ইসলামিক ব্যাংক চালু করা নিয়ে কথা শুরু হয়েছিল। ২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে ‘জন ধন যোজনা’ প্রকল্পের মাধ্যমে জনসাধারণের জন্য ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার ব্যবস্থা করেন। সেই সময়েও ভারতে ইসলামিক ব্যাংক চালুর কথা উঠেছিল।

কিন্তু, তারপরে আর বিশেষ অগ্রগতি হয়নি ভারতে ইসলামিক ব্যাংক গঠনের বিষয়ে। এই ব্যাপারে জানতে চেয়ে রিজার্ভ ব্যাংকের কাছে তথ্য জানার অধিকার আইনে আবেদন করে এক ব্যক্তি। সেই আবেদনের জবাব দিয়েছ রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “অনেক দিক বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে ভারতে শরিয়া বা ইসলামিক ব্যাংক গঠন করা যাবে না। কারণ এর সঙ্গে সাধারণ দেশবাসীর বৃহত্তর স্বার্থ এবং সাম্যের বিষয় জড়িয়ে রয়েছে।”

ধর্মীয় নিয়ম অনুসারে ইসলামে সুদ নেওয়া নিষিদ্ধ। সেই কারণে ইসলামিক ব্যাংকিং ব্যবস্থায় কোনও প্রকার সুদের প্রথা চালু নেই। বিশ্বের বিভিন্ন ইসলামিক দেশে এই নিয়মে ব্যাংক পরিচালিত হয়ে থাকে। কিন্তু ভারতে যে সকল ব্যাংক রয়েছে সেখানের সর্বত্রই আমানতের উপর গ্রাহকদের সুদ প্রদান করা হয়। একইসঙ্গে কোনও ব্যক্তি বা সংস্থা ঋণ নিলে তার উপরে সুদ ধার্য করে ব্যাংকগুলি। সুতরাং ভারতে ইসলামিক ব্যাংক চালু হলে দেশের সামগ্রিক ব্যাংকিং ক্ষেত্রে অসাম্য দেখা দেবে। জনসাধারণের জন্যেও যা অনভিপ্রেত হতে পারে। শুধু তাই নয়, ব্যাংকগুলির ক্ষেত্রেও ব্যবসা চালানোর ক্ষেত্রে অন্তরায় হতে পারে ব্যবসায়িক নিয়ম।

এই সকল কারণেই ভারতের মতো ধর্ম নিরপেক্ষ, সার্বভৌম, গণতান্ত্রিক দেশে ইসলামিক ব্যাংক খোলার অনুমতি দিতে নারাজ রিজার্ভ ব্যাংক।

 

কমেন্টস