ভারতে ফের একই পরিবারের ৬ সদস্যের আত্মহত্যা

প্রকাশঃ জুলাই ১৬, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- 

ভারতের দিল্লির বুরারি ঘটনার ছায়া এবার ঝাড়খন্ডের হাজারিবাগ জেলায়।  রবিবার সকালে জেলার খাজাঞ্চি তলাব এলাকায় একটি বাড়ি থেকে একই পরিবারের ছয় সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে দুই নারী, দুই পুরুষ ও দুই শিশু।  ঘটনার তদন্তে নেমেছে দেশটির পুলিশ।

নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন-মহাবীর মহেশ্বরী (৭০), তার স্ত্রী কিরণ মহেশ্বরী (৬৫), তাদের ছেলে নরেশ আগরওয়াল (৪০), নরেশের স্ত্রী প্রীতি আগরওয়াল (৩৮), ছেলে আমন (৮) এবং কন্যা অঞ্জলি (৬)।

দেশটির পুলিশ সূত্রে খবর, বাড়ির উপর তলা থেকে নিচে ঝাপ দিয়ে আত্মঘাতী হন নরেশ। ঘরের ভিতর থেকে দুই জনকে সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। একজনের গলায় ফাঁস লাগানো ছিল। অঞ্জলি নামে ছোট কন্যা শিশুটিকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলা হয়, আমনকে পাওয়া যায় গলার নলি কাটা অবস্থায়।

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে সুইসাইড নোট।  বাদামি রঙের একটি খামের ওপর লালকালি দিয়ে হিন্দিতে মৃত্যুর কারণ হিসাবে লেখা রয়েছে- ”অসুস্থতা, ব্যবসায়ীক ক্ষতি, প্রচুর পরিমাণ ঋণ, অপমান ও মানসিক যন্ত্রণা”।

সুইসাইড নোট দেখে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, ঋণের দায় শোধ করতে না পেরেই আত্মঘাতী হয়েছে পুরো পরিবার।

হাজারিবাগের ডিএসপি চন্দন ভ্যাটস জানান, আত্মঘাতী এবং খুন-উভয় দিকই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে ফরেন্সিক দলও নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের শুরুতে দিল্লির বুরারি এলাকায় একই পরিবারে ১১ জন সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়।

কমেন্টস