মোটরসাইকেলে মায়ের লাশ !

প্রকাশঃ জুলাই ১১, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

হাসপাতাল থেকে লাশ বহনকারী গাড়ি পাঠাতে অস্বীকার করায় ময়নাতদন্তের জন্য মায়ের লাশ মোটরসাইকেলে বসিয়ে  নিয়ে যায় ছেলে ও পরিবারের সদস্যরা। এমন হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের টিকামগড়ের মোহনগড়ে। তারপর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। 

স্থানীয় পুলিশ জানায়, রবিবার মস্তাপুর গ্রামের বাসিন্দা কুনওয়ার বাই নামে এক নারীকে সাপে কামড় দেয়। পরে তাকে মোহনগঞ্জে কমিউনিটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনার ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে জেলা প্রশাসন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঘটনা সম্পর্কে তিনি জানতেন না বলে জানান জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এস কে আহিরওয়ার। তবে গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। অভিযুক্তকে শাস্তি দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য আবেদন করা হয়। অভিযোগ হাসপাতাল থেকে লাশ বহনকারী গাড়ি পাঠাতে অস্বীকার করা হয়। পরে লাশ নিয়ে নিহতের ছেলে রাজেশ ও পরিবারের সদস্যরা মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ইতিমধ্যেই ঘটনার সমালোচনা শুরু করেছেন অনেকে। একবিংশ শতাব্দীতেও দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় চিকিৎসার নূন্যতম সুবিধা না পাওয়ার ছবিটা নির্লজ্জভাবে সামনে চলে এল এই ঘটনায়। গাড়ি না পাওয়ায় নিজের মায়ের লাশ মোটরসাইকেলে বসিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হলো ছেলেকে।

ওড়িশার দানা মাঝির ঘটনা সবারই জানা। যে ঘটনা গোটা দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার করুণ দশা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়েছিল। লজ্জায় ফেলেছিল মনুষ্যত্বকে। হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্স না পাওয়ায় এবং সঙ্গে টাকা না থাকায় কয়েক কিলোমিটার স্ত্রীর লাশ কাঁধে করে হেঁটেছিলেন স্বামী। ঠিক এই রকম আরও একটি ঘটনা ঘটে বেঙ্গালুরুর আনেকালে। যেখানে এক সরকারি হাসপাতাল অ্যাম্বুলেন্স না দেয়ায় তিন বছরের ছেলের লাশ মোটরসাইকেলে করে বাড়ি নিয়ে যান বাবা।

কমেন্টস