বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচ, মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে স্বামীর মুখ বেঁধে গণধর্ষণ!

প্রকাশঃ জুলাই ৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

দুই যুবকের সঙ্গে বিয়ের অনুষ্ঠানে দেখা। সেখানে একসঙ্গে নাচাও হলো। কিন্তু এর ভবিষ্যৎ পরিণতি যে এতটা ভয়াবহ তা ভাবতে পারেনি দম্পতি। বাড়ির সিঁধ কেটে তারা ঘটাল গণধর্ষণের ঘটনা!

গত সোমবার রাতে ভারতের উত্তর বং রাজ্যের কোচবিহারের শীতলকুচি গ্রামের এ ঘটনাটি ঘটে। এরপর বুধবার স্থানীয় শীতলকুচি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা।

এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে অভিযুক্ত ২ জনকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে এসে পিঙ্কু বর্মন ও কৃষ্ণ বর্মন নামের দুজন পুর্ব পরিচিতির সঙ্গে দেখা। আর পাঁচ জনের মতো তাদের সঙ্গেও নেচেছিলেন ওই দম্পতি।

অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর বাড়ি ফিরে যান ওই দম্পতি। ফেরার সময় তাদের পিছু নেন পিঙ্কু বর্মন ও কৃষ্ণ বর্মন। কিন্তু তাদের ধমক দিয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। তবে রাতে যে এত বড় বিপদ অপেক্ষা করছিল, তা হয়তো আঁচ করতে পারেননি কেউ। বাড়ির সিঁধ কেটে গৃহবধুকে ধর্ষণ করেন তারা।

গত সোমবার রাতে পিঙ্কু ও কৃষ্ণ সিঁধ কেটে ওই দম্পতির ঘরে ঢোকেন। এ সময় তারা স্বামীর মুখ বেঁধে,তাদের সন্তানের গলায় ছুরি ঠেকিয়ে গৃহবধূকে শারীরিক সম্পর্কের জন্য চাপ দেন। রাজি না হওয়ায় গণধর্ষণ করা হয়। পুলিশের কাছে এর পুরো ঘটনার বর্ণনা দিয়ে অভিযোগ করেছেন স্বামী।

কমেন্টস