৯০০ বছরের খরায় ধ্বংস হয় ইন্দোজ সভ্যতা

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৬, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

ইন্দোজ উপত্যকার উপর নির্মিত সভ্যতা টানা ৯০০ বছর ধরে চলা খরার কারণেই ধ্বংস গেছে। ৪ হাজার ৩৫০ বছরের পুরানো এই সভ্যতা ধ্বংসের কারণ খুঁজে পেয়েছেন ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজির গবেষকরা।

এদিকে তাদের গবেষণায় যে বিষয়গুলোকে প্রমাণ হিসেবে হাজির করা হচ্ছে, তাতে বলা হচ্ছে ইন্দোজ সভ্যতা ধ্বংসের পেছনে খরাই দায়ী।

তবে তা ২০০ বছরের খরা নয়, বরং ৯০০ বছরের টানা খরার ফলেই ওই সভ্যতা ধ্বংস গেছে। এই মাসেই বিশ্বের স্বনামধন্য জার্নাল কোয়াটারনারিতে এটি প্রকাশ হতে যাচ্ছে। ভূতত্ত্ব ও ভূপদার্থবিদ বিভাগের গবেষকরা গত ৫ হাজার বছরের বর্ষাকালের তারতম্য নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর হিমালয়ে ৯০০ বছর ধরে কোনো বৃষ্টিপাত হয়নি। এতে পানির সব উৎস শুকিয়ে গিয়েছিল। এতে ওই সভ্যতায় বসাবাসকারী মানুষজন পূর্বে ও দক্ষিণে স্থানান্তর হন। যেসব এলাকায় মোটামুটি বৃষ্টিপাত হতো, তারা সেখানেই আবাস গেড়েছিল।

কমেন্টস