টাকা দিলে ‘সেক্সটিং’ এর জন্য পাওয়া যায় মেয়েদের ফোন নম্বর!

প্রকাশঃ মার্চ ৮, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সম্প্রতি এক মার্কিন সংবাদ সংস্থা এবং হার্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশিত তথ্যে জানানো হয়েছে, গোটা বিশ্বে নারী নিরাপত্তায় ভারত ৫০ নম্বরে। ১৩০ কোটির দেশের এই ‘সাফল্য’ নিঃসন্দেহে সুখকর। তবে একই সঙ্গে রয়েছে দুঃসংবাদও।

তবে সম্প্রতি ট্রু কলার প্রকাশিত একটি সার্ভে সামনে আসতেই চোখ কপালে উঠেছে অনেকের। ৮২ শতাংশ ভারতীয় মেয়ে, যাদের বয়স ১৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে- তারা ‘সেক্সটিং’-এর শিকার।

কামুক বার্তা, সেক্সুয়াল টেক্সট, ব্ল্যাঙ্ক কল এবং স্টকারদের দাপটে নাজেহাল অবস্থা এই জেনারেশনের মেয়েরা। ভারতের মতো উন্নয়নশীল দেশে এখনও টাকা ফেললেই পাওয়া যায় অপরিচিত মেয়েদের নম্বরও।

চলতি বছরই একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ১৫ থেকে ৩৫ বছরের মেয়েরাই স্টকারদের সফট টার্গেট। ভারতের ১৫টি রাজ্যে গড়ে ২হাজার মেয়ে (১৫ থেকে ৩৫) তাদের মোবাইলে সেক্সুয়াল টেক্সট, ব্ল্যাঙ্ক কল পান।

সমীক্ষা আরও বলছে, ভারতের মতো দেশে জনসমক্ষে নারীর শ্লীলতাহানি এবং নারীর সঙ্গে অভব্য আচরণের ঘটনা হামেশাই ঘটে এবং ঘটে চলেছে।

ভারতের সবথেকে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশে টাকা দিলেই পাওয়া যায় অপরিচিত মেয়েদের মোবাইল নম্বর।

৭৮ শতাংশ ভারতীয় মেয়েরা তাদের মোবাইলে প্রতি সপ্তাহে সেক্সুয়াল টেক্সট, অশালীন ভিডিও এবং ফেক কল পান। রাজস্থানের জয়পুর এই ধরনের ঘটনায় দেশের শীর্ষে।

সমীক্ষা জানাচ্ছে, এদের মধ্যে কেবল ১০ শতাংশ ঘটনাই পুলিশের কাছে নথিভুক্ত রয়েছে।

কমেন্টস