ক্ষুধার জ্বালায় অজগর দম্পতিকে ভেজে খেল গ্রামবাসী!

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

বিডমর্নিং ডেস্ক-

পেটে ক্ষুধা থেকে কেইবা থাকতে পারে খুব বেশিক্ষণ। তেমনি ক্ষুধার যন্ত্রণায় শেষ পর্যন্ত দুটি পাইথন সাপ মেরে কেটে টুকরো করে রেঁধে খেলেন মালোয়েশিয়ার বর্নিয়ো-র গ্রামবাসীরা।

পরে সাপ দুটো রান্না করা সেই মাংস বিলি করা হয় আশপাশের গ্রামে। একটি পাইথনের দৈর্ঘ্য ২০ ফুট। ঘটনায় বিস্মিত পশুপ্রেমীরা।

বোর্নিয়োর জঙ্গলে সঙ্গমরত ছিলো একটি ছোট পুরুষ পাইথন ও আরেকটি ২০ ফুটের মেয়ে পাইথন। বিনতুলু গ্রামের বাসিন্দা তিনসুং উজাং হঠাতই জঙ্গলের মধ্যে খসখস আওয়াজ পান।

মন আনন্দে নেচে ওঠে। ক্ষুধার্ত পেট তখন লোভ বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েকগুণ। সাপটিকে খাওয়ার ইচ্ছে। তাঁর কথায়, ‘আমাদের কমিউনিটিতে পাইথনের মাংস খুবই জনপ্রিয়। খেতেও সুস্বাদু। তাই আর সময় নষ্ট করিনি।’

সাপ দুটি সঙ্গমরত থাকায় ধরা যাচ্ছিল না। একে অপরের সঙ্গে পেঁচিয়ে ছিল। ওই অবস্থাতেই গুলি করেন তিনসুং। তারপর স্থানীয়দের চেষ্টায় একটি ট্রাক ভাড়া করে সাপ দুটিকে নিয়ে আসেন গ্রামে।

সাপ দুটিকে সকলে মিলে টুকরো করে বিভিন্ন শাক-সবজি দিয়ে রাঁধা হয়। তারপর ভাত দিয়ে পিকনিক। দক্ষিণ এশিয়ার ওই অংশে বিশ্বের বৃহত্তম সব সাপেদের বসবাস।

কমেন্টস