আধুনিক যুগেও লিবিয়ায় দাস হসেবে বিক্রি হচ্ছে মানুষ!

প্রকাশঃ নভেম্বর ১৫, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

আধুনিক যুগেও এসে দাসপ্রথার মতো মানুষ বেচাকেনা হচ্ছে লিবিয়ায়। নিলাম পরিচালনাকারী ৮০০ বলার পর থেকে নিলামে অংশ নেওয়া ক্রেতাদের কেউ বলছেন ৯০০, কেউ বলছেন ১০০০, কেউ বলছেন ১২০০। সর্বোচ্চ দামের পরে আর কেউ দাম না বললে সেই দামই চূড়ান্ত করে দিচ্ছেন নিলামকারী। মাত্র ১২০০ লিবিয়ান মুদ্রায় (৮০০ ডলারে)কেনা জায় একজোড়া আফ্রিকান মানুষ। সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিও সিএনএন’র হাতে এসেছে।

বিক্রি হওয়া ছেঁড়া কাপড় আর জীর্ণ চেহারার দুই নাইজেরিয়ান যুবকের অবস্থা শোচনীয়। তাদের মুখ থেকে কোন শব্দই বের হচ্ছে না। তাদের মতো বিক্রি হওয়া সব দাস মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। প্রতিবাদ করার মতো শক্তি নেই তাদের শরীর আর মনে। ক্রেতা-বিক্রেতার কথা মতো চলতে বাধ্য হচ্ছে তারা। বিক্রি হওয়াদের সাথে কথা বলতে  চাইলে অত্যাচার আর নির্যাতনের ভয়ে মুখ খুলতে অস্বীকৃতি জানায় এরা।সংক্ষিপ্ত সময়ের এই ভিডিওটিতে নিলাম পরিচালনাকারীকে দেখা যায়নি।  ভিডিওটির সত্যতা নিয়ে এখন চলছে অনুসন্ধান।

মূলত নাইজেরিয়া, সেনেগাল এবং গাম্বিয়ার মতো অতি দরিদ্র দেশের ভাগ্যহারাদের অনেকেই উন্নত জীবনের স্বপ্ন নিয়ে লিবিয়া হয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রবেশের চেষ্টা করে। নৌকায় করে ইটালি যাওয়ার চেষ্টার সময় উত্তর দিকে লিবিয়ার ভূমধ্যসাগরের উপকূল থেকে তাদের অনেকেই অপহরণের শিকার হয়। এরপর বন্দীদের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ চাওয়া হয়। তাদের পরিবার টাকা দিতে রাজি না হলে তাদের ওপর অত্যাচার করা হয়। মুক্তি না পাওয়াদেরই এমন বাজারে এনে বিক্রির জন্য নিলামে উঠানো হয়।

কমেন্টস