৩ বছর ধরে শিক্ষিকাকে ভয় দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক

প্রকাশঃ নভেম্বর ৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বোলপুরে একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ভয় দেখিয়ে সহকর্মীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছে। বোলপুরের পাঁচশোয়া রবীন্দ্র বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক সীতারাম মণ্ডলের বিরুদ্ধে শারীরিক হেনস্থা এবং যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন ওই বিদ্যালয়েরই এক শিক্ষিকা।

তিনি প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বোলপুর থানায় লিখিত অভিযোগও করেন। এর পরেই পাঁচশোয়া গ্রামের নারী প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় চত্বরে ফেলে মারধর করেন। যদিও প্রধান শিক্ষক তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

নির্যাতিতা শিক্ষিকার অভিযোগ করেন, গত দুই/তিন বছর ধরে সীতারাম মণ্ডল তাঁকে ভয় দেখিয়ে শারীরিক হেনস্থা এবং যৌন নির্যাতন করেছেন। বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে গিয়ে জোর করে ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন তাঁর সঙ্গে ওই শিক্ষক শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেছেন।

এদিকে এই খবর গ্রামে পৌঁছতেই বিদ্যালয়ে হাজির হন পাঁচশোয়া গ্রামের বাসিন্দারা। জনতার রোষানল থেকে বাঁচতে নিজের ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন প্রধান শিক্ষক। কিন্তু দরজা ভেঙে তাঁকে গ্রামের মানুষ বাইরে বের করে আনে এবং স্কুল চত্বরে শুরু হয় মারধর। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষককে বাঁচাতে গিয়ে এক শিক্ষকের মাথা ফেটে যায়।পরে বোলপুর থানার পুলিশ গিয়ে সীতারামকে উদ্ধার করে।

কমেন্টস