গাড়ি চালানোর দাবি তোলায় বিয়ে ভাঙলো কনের

প্রকাশঃ অক্টোবর ১৩, ২০১৭

ছবি- প্রতীকী

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

আর কিছুক্ষণ পরেই বসতে হবে বিয়ের পিঁড়িতে। তার একটু আগেই কনের বাবা দাবি তুললেন, বিয়ের পর তার মেয়েকে গাড়ি চালাতে দিতে হবে। এই দাবি শুনেই চমকে উঠলেন বর। পরিস্কার জানিয়ে দিলেন, এই মেয়ের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন না তিনি। এমন ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে।

আরবভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল ‘মারসদ’ জানায়, ৪০ হাজার সৌদি রিয়াল দেনমোহর ধার্য করে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কথা ছিল ওই জুটির। কনেকে বিয়ের পর চাকরির অনুমতিও দিয়েছিলেন বর। কিন্তু হবু স্ত্রীর গাড়ি চালানোর আবদারটা তার ভাল লাগেনি। পরিবারের সবাই বারবার বোঝানোর পরেও বিয়ে করতে রাজি হননি তিনি।।

চলতি বছরেই নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি সরকার। আগামী বছরের জুন থেকেই নারীদের গাড়ি চালানো ও কেনার সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয় এক সরকারি বিবৃতিতে। এ সিদ্ধান্ত বিশ্বব্যাপী সমাদৃত হয়। সৌদি সরকারের এ সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বর্তমানে সৌদি আরবের নারীদের অনেক রীতিনীতি মেনে চলতে হয়। দেশটিতে নারীদের পড়াশোনা, ভ্রমণ ও অন্য বিভিন্ন কাজের জন্য অভিভাবকের অনুমতি নিতে হয়।

Advertisement

কমেন্টস