মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তুরস্ক থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিচ্ছেন এরদোগান!

প্রকাশঃ অক্টোবর ১২, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেডের সংবাদ সম্মেলনে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান এক ঘোষণায় স্পষ্টভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তুরস্ক থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিতে চাচ্ছেন তিনি।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিজেই তুর্কি নাগরিকদের ভিসা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, অতএব মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে অতি দ্রুত পদচ্যূত করতে হবে এবং তাকে বলতে হবে, কীভাবে তুমি আমেরিকা এবং তুরস্কের সম্পর্ক নষ্ট করে দিলে ? তোমাকে এ যোগ্যতা কে দিয়েছে?

ঐ ঘোষণায় তিনি বলেন, মার্কিন সরকার আঙ্কারা থেকে তাদের রাষ্ট্রদূত ফিরিয়ে নিতে এক সেকেন্ড বিলম্ব করতে পারবে না।

এদিকে তুর্কি নাগরিকদের ভিসা বন্ধের কারণে দুই দেশের মধ্যে কূননৈতিক সর্ম্পকে উত্তজেনা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে এরদোগান বলেন, সঙ্কট প্রথমে আমরা শুরু করিনি, বরং মতবিরোধের জন্য আমেরিকাই দায়ী।

প্রসঙ্গত, তুর্কি কর্তৃপক্ষ ইস্তাম্বুলে মার্কিন কনস্যূলেটে কর্মরত এক তুর্কি কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করলে দু,দেশের মাঝে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। গ্রেফতারকৃত কর্মকর্তাকে অবৈধ গোয়েন্দাগিরি, সন্ত্রাসীগোষ্ঠি ফাতহুল্লাহ গুলেনের সঙ্গে সম্পৃক্ততা , সংবিধান এবং সরকার উৎক্ষাত ষড়যন্ত্রের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়। এ পদক্ষেপের কারণে তাৎক্ষনিকভাবে মার্কিন দূতাবাস তুরস্কের সব ভিসাকার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। পাল্টা প্রতিবাদে ওয়াশিংটনে তুরস্কের দূতাবাস তুরস্কে গমনেচ্ছু মার্কিন নাগরিকদের ভিসা বন্ধ করে দেয়।

কমেন্টস