রোহিঙ্গা নির্যাতনে কানাডার ‘নাগরিকত্ব’ হারাচ্ছেন সুচি!

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭

Advertisement

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায়ের উপর নৃশংসতা ও নির্যাতন বন্ধে অং সান সুচির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। এমনকি সু চিকে কানাডার প্রদত্ত সম্মান সূচক নাগরিকত্ব বাতিলের কথাও মনে করিয়ে দেন ট্রুডো ।

বুধবার মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চির সঙ্গে ফোনালাপকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

ফোনালাপ শেষে এক বিবৃতিতে তিনি জানান, রোহিঙ্গাদের সঙ্গে মিয়ানমার সরকার যে আচরণ করছে, সে বিষয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন তিনি। রোহিঙ্গা সংকটে নৈতিক ও রাজনৈতিক নেতা হিসেবে সু চির ভূমিকার ব্যাপারে বিশেষ গুরুত্বারোপ করেছেন ট্রুডো। পাশাপাশি তিনি বেসামরিক লোকজনকে সুরক্ষা দেওয়া ও জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা দলকে রাখাইনে প্রবেশের অনুমতি দিতে বলেছেন।

এসময় সু চিকে ২০০৭ সালে দেওয়া কানাডার সম্মানসূচক নাগরিকত্ব প্রত্যাহারের বিষয়েও কথা হয়। ট্রুডো টুইটারে লিখেছেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ব্যাপারে কানাডার গভীর উদ্বেগ জানাতে আমি বুধবার অং সান সু চির সঙ্গে কথা বলেছি।’

উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট ভোররাত থেকে রাখাইনে সীমান্তরক্ষী পুলিশের সঙ্গে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) সদস্যদের সংঘাত শুরু হয়। এতে শতাধিক ব্যক্তি নিহত হন। এর মধ্যে ১২ জন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও বাকিরা আনসার সদস্য ছিল। এ ঘটনার পর মিয়ানমারের সরকারি বাহিনী বিতাড়ন অভিযান শুরু করে। এ পর্যন্ত মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে প্রায় পৌনে ৪ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। নিহত হয়েছে হাজারেরও অধিক রোহিঙ্গা।

Advertisement

Advertisement

কমেন্টস