ট্রাম্পের সঙ্গে রাত্রিযাপন মেলানিয়ার জন্য ‘ক্লান্তিকর’!

প্রকাশঃ আগস্ট ১৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সবসময় রাত্রিবাস করছেন না তার স্ত্রী মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। এ ব্যাপারে মেলানিয়ার এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু জানান, ফার্স্ট লেডির জীবন তার কাছে ‘ক্লান্তিকর’ বলেই মনে হচ্ছে।

৫৩ বছরের ফেদেরিকো পিনেটিলেই বলছেন, মার্কিন ফার্স্ট লেডি হিসেবে মেলানিয়া নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছেন না।

পিনেটিলেই একজন ইতালিয় যুবরাজ ও ফটোগ্রাফি স্টুডিওর বস। নিউ ইয়র্কে ট্রাম্পের বাসায় নিয়মিত পার্টিতে দাওয়াত পেয়ে থাকেন তিনি। তিনি বলেন, হোয়াইট হাউজে মেলানিয়া ফার্স্ট লেডি হিসেবে প্রচ- চাপ অনুভব করছেন। লাইফ এন্ড স্টাইল ম্যাগাজিনকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে পিনেটিলেই বলেন, ফার্স্ট লেডি হিসেবে সবসময় কেতাদুরস্ত, টিপটপ, নিখুঁত থাকার বিষয়টি তাকে কঠিন চাপে ফেলে দিয়েছে। কঠিন সময়সূচি মেনে প্রথমে একজন ভদ্রমহিলা, তার পর একজন মা, একজন পুরুষের স্ত্রী হওয়া তার কাছে ক্লান্তিকর হয়ে উঠেছে।

পিনেটিলেই বলেন, ফলে মেলানিয়া হোয়াইট হাউজে তার স্বামী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছ থেকে কিছুটা দূরে থাকছেন। বরং মেলানিয়া কেনাকাটাই পছন্দ করছেন। দিনে ৭১ বছর স্বামীর সঙ্গে মেলানিয়ার দুই /একবার দেখা হয় মাত্র। এমনকি পিনেটিলেই নিশ্চিত করেন, এক বিছানায় ট্রাম্প ও মেলানিয়া খুব কমই ঘুমান।

পিনেটিলেই আরও বলেন, মেলানিয়া নিজের একটি জগত তৈরি করে নিয়েছেন। প্রতিটি রাত প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তার রাত্রিবাস হয়ে ওঠে না। রাতে ট্রাম্প খুব ব্যস্ত থাকেন, কাজে গভীর মগ্ন থাকেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট চান না তার কাজে কেউ ব্যাঘাত ঘটাক। ট্রাম্পও মেলানিয়াকে বিরক্ত করতে চান না।

এছাড়া প্রেসিডেন্ট ও ফার্ষ্ট লেডি হিসেবে কঠিন নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে থাকতে হয় দুজনকেই। এও মেলানিয়ার কাছে অদ্ভুত এক ব্যাপার বলে মনে হয়। তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের গ্রহণযোগ্যতা যতই হ্রাস পাক মেলানিয়ার খ্যাতি বাড়ছেই।

প্রসঙ্গত, স্লোভিনিয়ায় জন্মগ্রহণকারী ট্রাম্পের স্ত্রী মডেলিং ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই ক্যামরার সামনে সহজেই নিজেকে উপস্থাপন করেন। কোনো ইতস্তত বা আড়ষ্ঠতা মেলানিয়ার মধ্যে এব্যাপারে কখনো কাজ করেনি। ৪৭ বছর বয়সে জিকি পত্রিকায় সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে পোজ দিয়ে সারাবিশ্বে আলোড়ন তোলেন মেলানিয়া।

কমেন্টস