‘মুহূর্তের ভুলে সারাবিশ্বে বেঁধে যাবে পরমাণু যুদ্ধ’, ধ্বংস হতে পারে পৃথিবী!

প্রকাশঃ এপ্রিল ২১, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ছোট্ট ভুলের খেসারত ডেকে আনবে গণ বিধ্বংসী পরমাণু যুদ্ধ৷ এমনই হুঁশিয়ারি দিল রাষ্ট্রসংঘের নিরস্ত্রীকরণ গবেষণা প্রতিষ্ঠান (দা ইউনাইটেড নেশন্স ইন্সটিটিউট ফর ডিসারমামেন্ট রিসার্চ) বা ইউএনআইডিআর৷

তাদের দাবি, স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র ব্যবহারে অতি নির্ভরতা পরমাণু যুদ্ধের শুরু ঘটাতে পারে৷ ড্রোন, কৃত্রিম উপগ্রহ, নেটওয়ার্ক এবং সেন্সর নিয়ে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন দেশের সামরিক যোগাযোগ ব্যবস্থা। এদের মধ্যে একটু ভুল বোঝাবুঝি কারণে চরম বিপদ দেখা দিতে পারে৷

ইউএনআইডিআর এমন সময়ে বিবৃতি দিল যখন, পরমাণু কর্মসূচি ঘিরে উত্তর কোরিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক প্রায় যুদ্ধের মুখে এসে দাঁড়িয়েছে৷ একইসঙ্গে ইরান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্ক বেশ গরম৷ রাষ্ট্রসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডারের সঙ্গে জটিল যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে৷ এতে একটু ভুলের কারণে পরমাণু যুদ্ধ শুরুর আশংকা আরও বেড়েছে।

১৯৮৩ সালে রটে গিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ছোঁড়া পাঁচটি ক্ষেপণাস্ত্র মস্কোর দিকে ছুটে আসছে। তারপরেই পাল্টা হামলার প্রস্তুতি নেয় সোভিয়েত রাশিয়া৷ পরে বুঝতে পারা যায় মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলার আশংকা সত্য নয়। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে এই ভুলবোঝাবুঝি৷ সেবার কোনওরকমে পরমাণু যুদ্ধ এড়ানো সম্ভব হয়েছিল৷ কলকাতা২৪।

Advertisement

কমেন্টস