‘নারীদের সমাজব্যবস্থা ইসলামিক হওয়া উচিত’

প্রকাশঃ মার্চ ৮, ২০১৮

আহমেদ নুর জামান, আইআইইউসি প্রতিনিধি-

“ভাল ও ভদ্র মহিলারা খুব কমই ইতিহাসের সাক্ষী হয়” নারী দিবসে নারীদের অধিকার নিয়ে এমনই বলেছিলেন আমেরিকান কূটনীতিক ইলেনর রোজবেল্ট। আর্ন্তজাতিক নারী দিবসে নারীদের শিক্ষা ও অধিকার নিয়ে বিডিমর্নিং এর সাক্ষাতকারে মতামত জানালেন আর্ন্তজাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীরা।

ক্লাসে মেয়ে শিক্ষার্থীরা তাদের সহপাঠী দ্বারা নির্যাতনের শিকার হওয়া নিয়ে ব্যবসায় অনুষদের ছাত্রী নাজাহ্ মিথীলা রহমান বলেন, “আমি এখন পর্যন্ত কখনো এমন হইনি এবং কখনো এমন হতে শুনিনি”। এছাড়া শিক্ষকদের মেয়ে শিক্ষার্থীদের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে জানতে চাইলে ফার্মাসী অনুষদের শিক্ষার্থী আরফা খানম বলেন, “শিক্ষকরা মেয়ে শিক্ষার্থীদেরকে যথাযথভাবেই গ্রহন করে। তবে কিছু শিক্ষক পরিচিত শিক্ষার্থীদেরকে অন্যদের তুলনায় সবক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধা বেশি দিয়ে থাকেন।”

অন্যদিকে শিক্ষকদের কাছ থেকে কখনো নির্যাতনের শিকার হওয়ার বিষয়ে ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য অনুষদের শিক্ষার্থী নাদিয়া ইসলাম ইমা বলেন, “কিছু শিক্ষক স্বভাবতই শিক্ষার্থীদের খারাপ নজরে দেখেন, বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে থাকেন এবং দৃষ্টিভঙ্গি দেখিয়ে অপদস্থ করেন”।

তাছাড়া নারীদের যাতায়াত ব্যবস্থা নিয়ে অর্থনীতি ও ব্যাংকিং অনুষদের সানায়া ইসলাম বলেন, “মাঝে মাঝে বাসে সিট পাওয়া যায় না, বেশিরভাগই ভার্সিটিতে যাওয়ার সময়”। পরিবারিক মূল্যায়ন নিয়ে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদে অধ্যয়নরত সুমাইয়া মারজান বলেন, “পরিবারের যে সকল কাজে আমার কথার মূল্যায়ন দেওয়া দরকার সে সকল কাজে আমার ইচ্ছাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়”।

পরিশেষে নারীদের জন্য সমাজব্যবস্থা নিয়ে আইন অনুষদের ছাত্রী রুকসানা আক্তার বলেন, “নারীদের জন্য ইসলাম এর শরীয়াহ্ মোতাবেক গঠিত সুষ্ঠু সমাজ হওয়া উচিত”

কমেন্টস