মানব দেহের চাঞ্চল্যকর ১৬ টি তথ্য!

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

মাঝে মাঝে চিন্তা করলেও খুব অবাক হবেন যে, রক্ত-মাংসে গড়া এই দেহে ছড়িয়ে আছে কতশত তথ্য, যা জানলে আপনি অবাক না হয়ে পারবেন না।

বিজ্ঞানীরা প্রতিনিয়ত গবেষণা করছেন মানবদেহ নিয়ে এবং একেক সময় বেরিয়ে আসছে চমকপ্রদ সব তথ্য। মানবদেহ নিয়ে যেমন জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই তেমনি এই দেহ নিয়ে তথ্যেরও শেষ নেই।

তাই চলুন আজ জেনে নেই এমনই ১৬টি তথ্য যা হয়তো আপনি জানতেনই না-

.মানবদেহে রোগ-প্রতিরোধকারী শ্বেত রক্ত কণিকার সংখ্যা ২৫০ কোটি এবং এরা মাত্র ১২ ঘণ্টা বেঁচে থাকে।

. একজন মানুষের দেহের রক্তের পরিমাণ তার দেহের মোট ওজনের ১৩ ভাগের ১ ভাগ।

. দেহে ও মনে যখন অনুভূতি আসে তখন তা মস্তিষ্কে পৌঁছতে ০.১ সেকেন্ড সময় লাগে।

. দেহে অক্সিজেন সরবরাহকারী লোহিত রক্ত কণিকার পরিমাণ ২৫০০ কোটি এবং এরা ৪ মাস বাঁচে।

. যখন মানুষ কোনো কারণে লজ্জা পায় তখন দেহের পাকস্থলীও লজ্জা পায়।

. একজন মানুষের স্নায়ুতন্ত্র এত লম্বা যে তা দিয়ে পৃথিবীকে ৭ বার পেঁচানো যাবে।

. কোনো অনুভূতি স্নায়ুতন্ত্রের মধ্য দিয়ে ঘণ্টায় ২০০ মাইল বেগে প্রবাহিত হয়।

. একজন শিশুর জন্মের সময় হাড় থাকে ৩৫০টি।

. একজন মানুষ সারা জীবনে ৪০ হাজার লিটার মূত্র ত্যাগ করে।

. একজন মানুষের শরীরে চামড়ার পরিমাণ হচ্ছে ২০ বর্গফুট।

. একজন মানুষের চামড়ার ওপর রয়েছে ১ কোটি লোমকূপ।

. মানুষের শরীরে যে পরিমাণ চর্বি আছে তা দিয়ে ৭টি বড় জাতের কেক তৈরি করা সম্ভব।

. মানুষের শরীরে ৬৫০টি পেশী আছে। কোনো কোনো কাজে ২০০টি পেশী সক্রিয় হয়।

. মুখমণ্ডলে ৩০টির বেশি পেশী আছে। হাসতে গেলে ১৫টির বেশি পেশী সক্রিয় হয়।

. একস্থান থেকে শুরু করে সমগ্র শরীর ঘুরে ওই স্থানে ফিরে আসতে একটি রক্ত কণিকা ১,০০,০০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে অর্থাৎ ২.৫ বার পৃথিবী অতিক্রম করতে পারে।

. আমাদের মস্তিষ্ক প্রায় ১০,০০০টি বিভিন্ন গন্ধ চিনতে ও মনে রাখতে পারে।

. মানুষের মস্তিষ্ক প্রতি মিনিটে ১,০০০ শব্দ পর্যন্ত পড়তে পারেন।

Advertisement

কমেন্টস