প্রথমে হুমকি এরপর পাইরেসির কবলে শাকিবের ‘রংবাজ’

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

এবার ঈদে মুক্তি প্রাপ্ত শাকিবের সিনেমা ‘রংবাজ’। অনেক বাঁধা বিপত্তির পর অবেশেষে সিনেমাটি মুক্তি পেলেও ঈদের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই পাইরেসির কবলে পড়ছে। এটি ছিল এবারের ঈদের সবচেয়ে আলোচিত ছবি। এতে অভিনয় করেছেন শাকিব খান ও বুবলী।

‘রংবাজ’ ছবির প্রযোজক মোজাম্মেল হক সরকার বলেন, ‘ঈদের আগে থেকেই নান্টু নামে এক লোক আমাকে ০১৯২০২১০৩২৫ এ নাম্বার থেকে ফোন করে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। না হলে আমার ছবিটি পাইরেসি করবে বলে হুমকি দেয়। ঈদের ছবি মুক্তি নিয়ে ব্যস্ততা থাকার জন্য এই উড়ো ফোনের ব্যাপারে আমি গুরুত্ব দেইনি। ঈদের পর ৫ সেপ্টেম্বর আমার ম্যানেজার মঞ্জুকে সেই ব্যক্তি আবারও ফোন করে বলে যে, দেখলি তো, আমাকে টাকা না দেয়ার ফল কী? ছবি পাইরেসি করে দিয়েছি। এবং ভবিষ্যতে সাবধান থাকার হুমকি দেয়। সঙ্গে একটি সিডিও পাঠায়। এরপর সিডি দেখে এবং ইউটিউবে সার্চ দিয়ে এর সত্যতা পাই আমি। বিষয়টি নিয়ে আমি র‌্যাবের অশ্লীলতা প্রতিরোধ বিষয়ক টাস্কফোর্সের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি।’

সিনেমার পাইরেসি করা ভিডিওতে দেখা যায় ‘রংবাজ’ ছবিটি পেন ড্রাইভ বা হার্ডডিস্ক থেকেই কপি করা হয়েছে। এর নিচে একটি হারবাল কোম্পানির স্ক্রল বিজ্ঞাপন রয়েছে। যেখানে ঔষুধ সেবাদাতার ফোন নাম্বারও দেয়া রয়েছে। যার নাম্বার ০১৮৮১১৩৩০৫৭।

পরপবর্তীতে সেই নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে এক লোক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘আমাদের বিজ্ঞাপন অনেক নাটক সিনেমার সিডি কিংবা ইউটিউবে যায়। এটিও হয়তো সেরকম কিছু। তবে এ ছবিতে বিজ্ঞাপনের বিষয়টি আমি জানি না। আমি ফোন রিসিভ করে শুধু কাস্টমারের কাছে ওষুধ পাঠানোর ব্যবস্থা করি। আমার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এটি বলতে পারবেন।’

এরপর তিনি বিষয়টি তাদের জানাবেন বলে ফোন কেটে দেন। তবে এই ঘটনায় ধারণা করা হচ্ছে, এই বিজ্ঞাপনের সঙ্গে জড়িত কোম্পানির লোকজনের সঙ্গে পাইরেসিকারদের ব্যবসায়িক যোগাযোগ রয়েছে। তবে পাইরেসি সন্ত্রাসী নান্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার দেয়া নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

Advertisement

কমেন্টস