‘বলতে ভয় পাই না, সালমান জেলে যাওয়ায় আমি খুব খুশি হয়েছি’

প্রকাশঃ এপ্রিল ৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় সুপারস্টার সালমান খানের পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের পর বলিউডের বিভিন্ন অভিনেতারা তার প্রতি সহমর্মিতা দেখালেও একমাত্র সোফিয়া হায়াতই নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

সালমানের রায়ের খবর প্রকাশ হওয়ার পর সোফিয়া তার ফেসবুক পেজে সালমানের ছবি শেয়ার করে নেতিবাচক পোস্ট দেন। সেখানে তিনি ছবির ক্যাপশনে লেখেন, ‘বিইং হিউম্যান’-এর বদলে লেখা ‘নো মোর হিউম্যান’।

সোফিয়া তার পোস্টে লেখেন, ‘‘কর্মের ফল পেতেই হয়। অনেকে সালমানের বিরুদ্ধে কথা বলতে ভয় পান। তারা ভাবেন সালমান পুরো বলিউডের পর্যালোচনা করেন। কিন্তু আমি বলতে ভয় পাই না। সালমান জেলে গিয়েছেন বলে আমি খুব খুশি হয়েছি।’’

লম্বা পোস্টটির শেষে সোফিয়া লেখেন, ‘‘আজ আমি বলতে পারি, হিন্দুস্তান জিন্দবাদ।’’

সোফিয়া হায়াত একাধারে অভিনেত্রী, মডেল ও গায়ক। তিনি বিগ বস-৮ এর প্রতিযোগী ছিলেন। তবে এই প্রথম নয়। এর আগেও বহুবার বিভিন্ন বিষয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে সোফিয়া হায়াত বিতর্কে জড়িয়েছিলেন।

বিলুপ্তপ্রায় কৃষ্ণসার প্রজাতির হরিণ শিকার মামলায় দোষী সাব্যস্ত সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার রুপি জরিমানা করে ভারতের যোধপুর আদালত।

গতকাল রায় শেষে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।  বৃহস্পতিবার ২৮ জন সাক্ষীর উপস্থিতিতে প্রধান বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট দেব কুমার খত্রি এ রায় দেন। এর আগে গত ২৮ মার্চ মামলার চূড়ান্ত আবেদন যোধপুরের একটি গ্রাম্য আদালতে সম্পন্ন হয়।

এদিকে এই মামলায় সালমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, ১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ে যোধপুর প্রদেশের কাঙ্কানি গ্রামে গিয়েছিলেন। শুটিং চলাকালে ১ ও ২ অক্টোবর রাতে আলাদা আলাদা দুটি জায়গায় সালমান কৃষ্ণসার শিকার করেন।

কমেন্টস