হুমায়ুন মোহে আটকে আছে ফাগুন

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

নিয়াজ শুভ।।

নায়ক নয়, ভিলনকে দেখতে সিনেমা হলে যেতেন দর্শকশ্রোতারা। তার সাবলীল কণ্ঠ, দক্ষ অভিনয়ে চোখ ফেরানোর কোন সুযোগ নেই। বিশ্ব সিনেমার ইতিহাসে এমন ঘটনা বিরল। হয়তো বাস্তব জীবনের একাকীত্বই তাকে সকলের প্রিয় মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলো। তিনি অভিনয়ের কিংবদন্তী পুরুষ হুমায়ুন ফরীদি।

ফাগুনের জন্মকাল থেকে সে বেশ ভালোই ছিলো। রঙিন এক মুগ্ধতা নিয়ে আসতো। ভালোবাসতো আর ভালোবাসাতো। কিন্তু এখন এই বসন্ত যে কতোটা বিরহ নিয়ে আসে সেটা ফাগুনই জানে। ফাগুনকে আসতে হয় তাই সে নিয়ম ভাঙ্গে না। এই ফাগুনেই আমাদের চোখের সামনে থেকে দূরত্ব এঁকেছেন হুমায়ুন ফরীদি।

দীর্ঘ অভিনয় জীবনে চলচ্চিত্র, টেলিভিশন ও মঞ্চে সমান দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন হুমায়ুন ফরীদি। তাক লাগিয়ে দিয়েছেন দেশ-বিদেশের কোটি ভক্তের হৃদয়। হ্যামিলিনের বাঁশিওয়ালার মতো নিজের মোহের জালে আটকে রেখেছেন সবাইকে। আর তাই তো তার মৃত্যুর পরও কেউ সেই জাল ভেদ করে বের হতে পারছে না।

খুব বেশি সংস্কৃতিময় মানুষটাই ফাগুনের আমেজের প্রথম দিন (২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি) বিষাদের কালো আভা ছড়িয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছিলেন। অবশ্য অভিনয় শিল্পের অনন্য এই কারিগরের যাওয়া হয়নি কোথাও। এমন অভিনেতা শত বছরেও কোথাও যেতে পারে না। যতদিন বাংলা থাকবে ততদিন বেঁচে থাকবেন হুমায়ুন ফরীদি। তবে যে ফাগুনে ফরীদি নেই সে ফাগুন বিরহের।

আজও বিশ্বাস করতে কষ্ট হয় তিনি আর নেই। পর্দায় তার ঝলমলে হাসি দেখলে মনে হয় এই বুঝি সামনেই আছেন তিনি। তার অভাব পূরণ হওয়ার নয়। আজ তার চলে যাওয়ার দিনে খুব জানতে ইচ্ছে করছে, সবাইকে ফাঁকি দিয়ে আকাশের ওপারে কেমন আছেন সকলের প্রিয় মুখ হুমায়ুন ফরীদি?

কমেন্টস