জমিদারের মেয়ে মৌসুমী হামিদ

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

সকলের প্রিয় মুখ মৌসুমী হামিদ। তার বাবা এক সময় জমিদার ছিলেন। কালের পরিক্রমায় এখন সব হারিয়েছেন। তাদের জমিজমা অন্যদের দখলে চলে গেছে।

বিদেশ থেকে ফিরে সেই গ্রামে আসেন শ্যামল মাওলা। তার সঙ্গেই প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন মৌসুমী। তবে বাঁধ সাধে মৌসুমীর বাবার বাড়ি বন্ধক রাখা মালিক। দুটি বাড়ির বন্ধক ছাড়াতে পাওনাদারকে বিয়ে করার শর্ত দেয়া হয় মৌসুমীকে। এমন অবস্থায় মৌসুমীর কাছে একটি চিঠি লিখে চলে যায় শ্যামল মাওলা।

ঘটনাটি বাস্তবে নয়, নাটকে। লিব্রত কুমার রচিত নাটকটির নাম ‘শেষের চিঠি’। রাজধানীর অদূরে গাজীপুরে মনোরম লোকেশনে তিনদিন শুটিংয়ে গত সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দৃশ্যধারণ শেষ হয়।

নাটকটি প্রসঙ্গে মৌসুমী হামিদ বলেন, ‘গল্পটি এক কথায় অসাধারণ। এই নাটকের রচয়িতা লিব্রতকে মূলত আমরা ক্যামেরা কিংবা এডিটিংয়ের মানুষ হিসেবেই চিনি। কিন্তু সে যে এতো ভালো গল্প লিখতে পারে সেটা আমার জানা ছিল না। পরিচালক বিপ্লব সময় ও যত্ন নিয়েই কাজটি করছেন। আশা করছি দর্শকদের নাটকটি ভালো লাগবে।’

উল্লেখ্য, খুব শীঘ্রই যেকোনো একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত হবে ‘শেষের চিঠি’।

কমেন্টস