ঐন্দ্রিলার কারণে দেশে ফিরলেন সজল

প্রকাশঃ জানুয়ারি ২, ২০১৮

নিয়াজ শুভ।।

ঐন্দ্রিলার সঙ্গে সজলের দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক। তবে তা নেট নির্ভর। সজল ইটালি থাকেন আর সেখান থেকে ফেসবুকে ঐন্দ্রিলার সাথে পরিচয়। পরিচয় থেকে ভালবাসা। যা অনেক গভীর রূপ নেয়।

একদিন ঐন্দ্রিলা তাকে ভালোবাসা দিবসে দেশে আসতে বলে। সত্যিকারে যদি তুমি আমাকে ভালোবাসো, তাহলে ঐ দিন দেশে এসে প্রমাণ করতে হবে। কিন্তু ভাগ্যের বিড়ম্বনা সজল ১৪ তারিখের পূর্বে কোন টিকিট পায় না। বিষয়টি ঐন্দ্রিলাকে জানালে সে সব নেট থেকে তাকে ব্লক করে দেয়। এমনকি মোবাইল নম্বরও পরিবর্তন করে। সজল উপায় অন্ত না পেয়ে হুট করে দেশে চলে আসে, খুঁজতে থাকে ঐন্দ্রিলাকে। কোথাও খুঁজে পায়না তাকে।

এটি ঐন্দ্রিলা এবং সজলের বাস্তব জীবনের কোন গল্প নয়। সম্প্রতি শুটিং শেষ হওয়া  ‘ফেইক লাভ’ নামের একটি নাটকে এমনই দুটি চরিত্রে দেখা যাবে তাদের। আহসান হাবিব সকালের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন জনপ্রিয় নাট্য নির্মাতা দীপু হাজরা। সজল-ঐন্দ্রিলা ছাড়াও নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন পাভেল ইসলাম, মাহা সিকদার, মীর শহীদ, আবির খান, হিমি, হিয়া প্রমুখ।

নাটকটি প্রসঙ্গে দীপু হাজরা বলেন, ‘গল্পটি একটু ব্যতিক্রম আছে আর সজল ও ঐন্দ্রিলার সাথে এটি আমার প্রথম নাটক। ওরাও অনেক ভালো করেছে। বেশ ভালো একটি কাজ হবে বলে আশা করছি।’

সজল বলেন, ‘দীপু হাজরা ভাইয়ের সাথে পরিচয় দীর্ঘ বছরের, কিন্তু নাটকের কোন কাজ আমরা করিনি এর আগে। কাজের অনেক সুনাম শুনেছি। উনি অনেক ভালো কাজ করেন। কাজে এসে তার প্রমাণও পেলাম। অনেক গোছানো একটি ইউনিট। সর্বপরী উনার পরিচালনা এক কথায় অসাধারণ। নাটকটিতে অভিনয় করেও আমি বেশ এনজয় করেছি। আশা করি দর্শকরা ভিন্ন কিছু পাবেন।’

ঐন্দ্রিলাও প্রায় একই সুরে বলেন, ‘দীপু ভাইয়ের সাথে আমার প্রথম কাজ। অসাধারণ একজন মানুষ দীপু ভাই। পরিছন্ন একটি ইউনিট। নাটকের গল্প ও কাষ্টিং ভালো ছিল। আমিও আমার সর্বোচ্চটা দেবার চেষ্টা করেছি। বাকীটা দর্শকের উপরে। তবে মজার বিষয় হলো প্রায় ১০ বছর পর সজল ভাই এর বিপরীতে আবার ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালাম। তাই ফিলটা একটু অন্য রকম ছিল।

উল্লেখ্য, আসছে ভালোবাসা দিবসে একটি বে-সরকারী স্যাটেলাইট চ্যানেলে নাটকটি প্রচারের কথা রয়েছে।

কমেন্টস