তারকাদের ‘লুকোচুরি বিয়ে’

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

বিয়ে নিয়ে তারকাদের লুকোচুরি মনোভাব নতুন নয়। বহু আগে থেকেই বিয়ের খবর লুকিয়ে রাখার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। এমন অনেকেই আছেন যারা নিজ থেকে বিয়ের খবর জানাননি। অথচ এমন অনেক তারকা দম্পতি রয়েছে যাদের বিয়ে তাদের ক্যারিয়ারে কোন প্রভাব ফেলেনি।

মিডিয়ায় একটি কথা প্রচলিত আছে বিবাহিতদের জনপ্রিয়তা কমতে থাকে। আর এই ধারণা শোবিজে কাজ শুরুর আগেই কোনো এক শ্রেণি তাঁদের মাথায় ঢুকিয়ে দেয়। চলুন জেনে নেয়া যাক এমন কিছু ‘লুকোচুরি বিয়ে’র খবর-

শাকিব খান-অপু বিশ্বাসঃ তারকা দম্পতি শাকিব-অপুর বিয়ে ছিলো চলতি বছরের আলোচনার শীর্ষে। বিয়ের আট বছর পর জানা যায় তাদের বিয়ের খবর। যদিও চলতি বছরই তারা বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন।

মৌসুমী-ওমর সানীঃ প্রেম করেই এ দম্পত্তি বিয়ে করেছিলেন। পত্রিকায় হারহামেশাই তাদের বিয়ের খবর আসতো। এমনকি বিয়ের খবরও প্রকাশ পেয়েছে। কিন্ত ‍প্রথম দিকে স্বীকার না করলেও খুব বেশি সময় নেননি এই দম্পতি। আচমকা পাঁচ তারকা এক হোটেলে অনুষ্ঠান করে নিজেদের বিয়ের খবর জানান তাঁরা।

হৃদয় খানঃ জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হৃদয় খানও গোপনে বিয়ে করেছেন। সুজানার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তার পুরনো বিয়ের খবর প্রকাশ পায়। চলতি বছর ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসেন তিনি। সেই বিয়েতেও রাখা হয় গোপনীয়তা।’

ইমনঃ দুই পর্দার পরিচিত মুখ ইমন। বিয়ের চার বছর পর তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ পায়। ততদিনে স্ত্রী আয়শা ইসলামের গর্ভে জন্ম হয়েছে তার দুই সন্তান সামিন ও শায়ানের। সম্পর্কটা প্রেমেরই ছিল, তবে বিয়েটা হয় পারিবারিক আয়োজনে। ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করেই বিয়ের কথা লুকিয়েছিলেন তিনি।

তিন্নিঃ মডেল ও অভিনেত্রী তিন্নির প্রথম বিয়ে, সন্তান জন্মদান ও বিচ্ছেদের কথা সবারই জানা ছিল। তবে দ্বিতীয় বিয়ের ঘটনাটি তিনি চেপে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয় সন্তান আরিশা জন্মগ্রহণের পর বিয়ের খবরটি প্রকাশ করতে বাধ্য হন তিন্নি।

রেসিঃ ২০০৮ সালে বুলবুল জিলানীর ‘নীল আঁচল’ চলচ্চিত্রে নায়িকা হয়ে আসেন রেসি। প্রথমে এই নির্মাতা, পরে এক মডেল সর্বশেষ অভিনেতা ডিপজলের সঙ্গে রেসির প্রেম-বিয়ের গুঞ্জন ঢালিউডের বাতাস ভারি করেছে। অবশেষে ২০১২ সালে রেসি বিয়ে করেন এক ব্যবসায়ীকে। পুরনো বিয়ের খবর গুলো অধরাই থেকে যায়।

ডলি সায়ন্তনীঃ এক সময় আলোচিত গায়িকা ছিলেন ডলি সায়ন্তনী। প্রথম স্বামী গীতিকার আহমেদ রিজভীর সঙ্গে ডিভোর্সের পর কণ্ঠশিল্পী রবি চৌধুরীকে বিয়ে করেন তিনি। কিন্তু সেই সংসারও বেশিদিন টেকেনি। রবিকে ছেড়ে কোরিয়া প্রবাসী একজনকে বিয়ে করেন। কিন্তু সেখানেও কোনো স্থিতিশীলতা ছিল না। সেই স্বামীকে ছেড়ে আবারও অন্য একজনকে বিয়ে করেন এই সংগীতশিল্পী। চার সংসারে তার তিনটি সন্তান রয়েছে। সাবেক স্বামীদের কাছ থেকে সন্তান লালন-পালনের টাকা দিয়েই নাকি ডলির বর্তমান সংসার চলে।

আঁখি আলমগীরঃ সুকণ্ঠী গায়িকা আঁখি আলমগীরকে নিয়েও বেশ বিতর্ক রয়েছে। দুই বিয়ের বিতর্কে তাকে নিয়েও নিন্দার ঝড় উঠেছিল এক সময়। এখন আর তার বিয়ে নিয়ে তেমন কোন শোরগোল শোনা যায় না। তবে কে স্বামী তাও সঠিকভোবে জানা যায়নি।

কুসুম শিকদারঃ ২০০৭ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন কুসুম শিকদার। কিন্তু সেটা মিডিয়ায় অনেকদিনই অজানা ছিল। স্বামীকে নিয়ে তার খুব বেশি চলনও দেখা যায় না।

এভ্রিলঃ মিডিয়ায় আসার অনেক আগেই বিয়ের পিড়িতে বসেছিলেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আলোচিত প্রতিযোগী এভ্রিল। শিরোপা জিতলেও গোপন বিয়ের খবর প্রকাশ হওয়ায় কেড়ে নেয়া হয় তার মুকুট।

রিয়াঃ মডেল ও নৃত্যশিল্পী রিয়া। তবে অভিনয়শিল্পী হিসেবেও তাকে পর্দায় দেখা গেছে। নিজের ক্যারিয়ার আর জনপ্রিয়তাকে পেছনে ফেলে ২০১৩ সাল থেকেই রিয়া আমেরিকা থাকছেন। বর্তমানে এক সন্তানের মা তিনি। স্বামী ইভান চৌধুরী আর সন্তানকে ঘিরেই এখন তার যত ব্যস্ততা।

কমেন্টস