লিটুর ‘কান্নায়’ আবাহনী মাঠেই হচ্ছে বেঙ্গল সংগীত উৎসব!

প্রকাশঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৭

বিনোদন ডেস্ক-

বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব আয়োজনটি অবশেষে আয়োজিত হতে যাচ্ছে। চলতি বছরই ২৬ ডিসেম্বর থেকে ধানমণ্ডির আবাহনী মাঠে শুরু হবে পাঁচ দিনের এই আয়োজন। উৎসবটি চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু মঙ্গলবার দুপুরে জানান, এই বছর বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবে উপমহাদেশের যেসব শিল্পীর আসার কথা ছিল, তাদের ৮০ শতাংশ এই আয়োজনে যোগ দেবেন।

এর আগে গত ২২ অক্টোবর দুপুরে রাজধানীর অভিজাত হোটেল ওয়েস্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে চলতি বছরের ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব’ এর বাতিল খবর জানাতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু। তিনি তখন বলেছিলেন, ‘শাস্ত্রীয় সংগীতকে সাধারণ মানুষ ও তরুণদের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে আর্মি স্টেডিয়ামে গত পাঁচ বছর এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিল। কিন্তু এবারই প্রথম এই ধারাবাহিক উৎসব বাতিল হল। উপমহাদেশীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের রথী-মহারথীরা নিয়মিতই এতে অংশ নেন। বাংলাদেশ ছাড়াও বিদেশের দর্শকের কাছে আয়োজনটি সমাদৃত হয়েছিল।’

 এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু জানান, বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবটি চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।  এই বছর বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবে উপমহাদেশের যেসব শিল্পীর আসার কথা ছিল, তাদের ৮০ শতাংশ এই আয়োজনে যোগ দেবেন।

আবুল খায়ের লিটু বলেন, আমরা ক্ল্যাসিক্যাল ফেস্টিভাল আয়োজনের জন্য মিরপুরের ইনডোর স্টেডিয়ামটি বরাদ্দ চেয়েছিলাম। আমাদের আবেদনে অর্থমন্ত্রীরও সায় ছিল। কিন্তু ক্রিকেটের ভরা মৌসুমে এই আয়োজনটি করতে গেলে পরে টার্ফ নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পরে আয়োজনটি আমরা ধানমণ্ডির আবাহনী মাঠে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেই। এ বিষয়ে আমাদের অনুমতি নেওয়াও হয়ে গেছে।

আবুল খায়ের জানিয়েছেন, আগামী সাত দিনের মধ্যেই একটি সংবাদ সম্মেলন ডেকে আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরবে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। এর আগে এ বছরই ২৩ নভেম্বর থেকে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবের ষষ্ঠ আসরটি বনানীর আর্মি স্টেডিয়ামে আয়োজনের কথা ছিল। কিন্তু সেনা ক্রীড়া সংস্থার অনুমতি না মেলায় সেই আয়োজনটি এ বছর করা হবে না বলে জানিয়েছিলেন আবুল খায়ের লিটু।

কমেন্টস