‘ঢাকা অ্যাটাক’র পুরোটাই আমার ইমোশনাল জার্নি ছিলোঃ নওশাবা

প্রকাশঃ নভেম্বর ১, ২০১৭

‘ঢাকা অ্যাটাক’ নিয়ে দর্শকদের মাতামাতির শেষ নেই। ছবিটি নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। সেই ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকবেন জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ। তিনি এখন আর পুরনো ছকে আটকে নেই। একাধারে নাটক, বিজ্ঞাপন ও চলচ্চিত্রে অভিনয় করে সব শ্রেণীর দর্শকদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। বর্তমানে পুরোদস্তুর বাণিজ্যিক সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। তারকা হয়ে উঠা এই অভিনেত্রীর সাথে কথা হলো বিডিমর্নিং এর। সাক্ষাতে ছিলেন নিয়াজ শুভ-

কেমন আছেন?

নওশাবাঃ ভালো।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ নিয়ে আপনার অনুভূতি…

নওশাবাঃ ছবিটিতে আমরা দুই বছর ধরে শুটিং করেছি। একটা চরিত্রকে দুই বছর ধরে ধারণ করা খুব সহজ নয়। পুরোটাই আমার ইমোশনাল জার্নি ছিলো। ছবিটি যে এত বিশাল আয়োজনের সেটি আমি জানতাম না। একদমই নিভৃতে আমার দৃশ্যধারণ হয়েছে।

ছবিটিতে কাজের শুরু কিভাবে?

নওশাবাঃ আমাকে ফোন করে ডাকা হলো। দীপঙ্কর ভাই জানালেন তিনি আমার সঙ্গে কথা বলতে চান। আমি গেলাম। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ নামটা শুনে ভাবলাম মারদাঙ্গা কোন চরিত্র পাবো। আমি স্ক্রিপ্টও দেখিনি। দীপন দা আমাকে বললেন, আমি একজন অভিনেত্রী খুঁজছি যে আমাকে অভিনয়টা ঠিকঠাক দিবে। আমি তোমাকে অনেক কিছু দিতে পারবো না কিন্তু তোমার অভিনয়ের জায়গাটুকু দিবো। পুরোটা বিশ্বাসের উপরেই কাজটি করেছি।

দর্শকদের কেমন সাড়া পেলেন?

নওশাবাঃ ভাবতেও পারিনি সকলের এত ভালবাসা পাবো। দর্শকদের এমন উচ্ছ্বাস দেখে নিজেকে সার্থক মনে হচ্ছে।

‘ঢাকা অ্যাটাক ২’ তে আপনাকে পাওয়া যাবে?

নওশাবাঃ যেহেতু সে বিষয়ে এখনো কোন অফিশিয়ালি ঘোষণা আসেনি তাই এখনই কিছু বলতে চাচ্ছি না।

এত ব্যস্ততার মাঝে মেয়েকে সময় দিচ্ছেন কিভাবে?

নওশাবাঃ আমি আমার মেয়েকে ঠিক আমার মতো করে সময় দেই। আমি সংখ্যায় না, গুণমানে বিশ্বাস করি। যখন ওর সাথে থাকি তখন শুধু ওকেই সময় দেই। কাজের বাইরে আমার পুরোটা জীবন জুড়ে শুধু সে। আমার কাজের একমাত্র উৎসাহ আমার মেয়ে।

হাতে নতুন কি কাজ আছে?

নওশাবাঃ সামনে আমার চারটা ছবি আসবে। সেগুলোর ডাবিংয়ের কাজ করছি। নতুন একটি ছবির ব্যপারে কথা হচ্ছে। ফাইনাল হলে অবশ্যই জানতে পারবেন। সবেমাত্র শর্টফিল্ম ‘কবর’ এর কাজ শেষ করলাম। আর একটি শর্টফিল্মের কথা চলছে। এছাড়া ‘সাত ভাই চম্পা’ নামে চ্যানেল আইয়ের একটা প্রজেক্ট আছে। সেখানে আমাকে দেখা যাবে।

এতক্ষণ সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

নওশাবাঃ আপনাকেও ধন্যবাদ।

কমেন্টস