ফিল্মে শিল্প নিয়ে খেলার অনেক জায়গা আছেঃ আসিফ চৌধুরী

প্রকাশঃ অক্টোবর ২৮, ২০১৭

‘একটা চুইংগাম চিবিয়ে কোথায় ফেলা হবে সেটিও আর্ট ডিরেক্টরের ইচ্ছা অনুযায়ী হয়েছে। এই ধরণের কাজগুলো করতে গেলে অনেক শিল্পের খেলা দেখানো যায়’ কথাগুলো বলেছেন সাফল্যের শীর্ষে থাকা ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমার আর্ট ডিরেক্টর আসিফ চৌধুরী। প্রথমবার সিনেমায় কাজের অভিজ্ঞতা জানতে বিডিমর্নিং এর সাথে কথা হলো তার। সাক্ষাতে ছিলেন নিয়াজ শুভ-

কেমন আছেন?

আসিফ চৌধুরীঃ ভালো।

ঢাকা অ্যাটাকে কাজের শুরুটা কিভাবে?

আসিফ চৌধুরীঃ আমার আর্টের গুরু জুনায়েদ মুস্তফা চৌধুরীকে এই ছবিতে কাজের জন্য অফার করা হয়। তিনিই আমাকে রেফার করেন। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে ছবিটির পরিচালক দীপঙ্কর দীপনের সাথে আলোচনা হয়। ব্যাটে-বলে মিলে যাওয়ায় কাজ শুরু করি।

এই ছবিতে আপনার প্রাপ্তি…

আসিফ চৌধুরীঃ আর্ট ডিরেক্টর হিসেবে যত মানুষের অভিনন্দন পেয়েছি সেটি আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ পাওয়া।

প্রথম সিনেমায় কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?

আসিফ চৌধুরীঃ বেশ ভালো। ফিল্মে শিল্প নিয়ে খেলার অনেক জায়গা আছে। ঢাকা অ্যাটাকে আমি সেটি পেয়েছি। এই সিনেমায় আমি আমার ভেতরের শিল্পকে কাজে লাগাতে পেরেছি। এখানে আর্ট ডিরেক্টরের বেশ প্রাধান্য ছিলো।

কোন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে?

আসিফ চৌধুরীঃ পুরো কাজটাই ছিলো বিশাল চ্যালেঞ্জিং। যেহেতু এটি সিনেমা তাই একটু চাপ নিতে হয়েছে। এত বড় কাজে কিছুটা সমস্যা থাকবেই। আমিও সমস্যায় পড়েছি। বাজেট শর্ট হওয়ায় কাজ আটকে ছিলো। অবশ্য পরে সেটি আবার রিকভার হয়ে গেছে। এছাড়া আর তেমন কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি।

ভবিষ্যতে আপনাকে আর্ট ডিরেক্টর হিসেবে পাওয়া যাবে?

আসিফ চৌধুরীঃ চার বছর ধরে আর্ট ডিরেকশনের সাথে জড়িয়ে থাকতে থাকতে এটি আমাকে ভালোবেসে ফেলেছে। ভালো সিনেমার গল্প পেলে অবশ্যই আর্ট ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করবো।

বাণিজ্যিক ছবিতে নিয়মিত…

আসিফ চৌধুরীঃ কমার্শিয়াল অনেক সিনেমার কাজ পাই কিন্তু আমি সেগুলোতে কাজ করতে চাই না। কারণ সেখানে শিল্প নির্দেশনার খাত কম। আমি আমার মনমত ডিজাইন করতে পারবো না। কিন্তু ঢাকা অ্যাটাকের মত গল্প, প্লাটফর্ম পেলে কাজ করবো।

হাতে নতুন কি কাজ আছে?

আসিফ চৌধুরীঃ আমি বিজ্ঞাপনের লোক। এখন যদিও বিজ্ঞাপনের কাজ কমিয়ে দিয়েছি। হাতে চার-পাঁচটা বিজ্ঞাপনের কাজ আছে। এছাড়া দুটি সিনেমার বিষয়ে আলোচনা চলছে।

‘ঢাকা অ্যাটাক’র জনপ্রিয়তা আন্দাজ করতে পেরেছিলেন?

আসিফ চৌধুরীঃ যখন ছবিটির গল্প শুনি তখনই মনে একটা ভালোলাগা কাজ করেছিলো। তারপর যখন কাজ শুরু করি তখন মনে হতো ভালো কিছু হচ্ছে। কিন্তু ছবিটি যে এতটা জনপ্রিয়তা পাবে সেটি ভাবতে পারিনি। ছবির এই সাফল্য আমার জন্য বিশাল প্রাপ্তি। দর্শকদের এমন ভালোবাসায় আমি সিক্ত।

এতক্ষণ সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

আসিফ চৌধুরীঃ আপনাকেও ধন্যবাদ।

কমেন্টস