সালমান শাহ্‌ ও নিজের গর্ভপাত নিয়ে মুখ খুললেন শাবনূর

প্রকাশঃ আগস্ট ১৪, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

অভিনেতা সালমান শাহ আত্মহত্যা করেছিলেন নাকি তাঁকে খুন করা হয়েছিল সেই বিষয়ে হল অনেক ঘোলাচ্ছে। হত্যাকান্ডের ৭ নম্বর আসামী রুবির কথানুযায়ী তাকে হত্যা করা হয়। তবে রুবি তার এক মন্তব্যে অটল থাকছেন না। একের পর এক ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে পুরো বিষয়টির মোড় ঘুরিয়ে দিচ্ছেন তিনি। তবে গত ১৩ আগস্ট আমেরিকার অনলাইট টিভি টাইম টেলিভিশনে লাইভে এক চমকপ্রদ তথ্য দেন রুবি। রুবি বলেন, সালমান শাহ্‌ ও নায়িকা শাবনূরের অবৈধ সম্পর্ক ছিল যার দরুন শাবনূরের গর্ভপাত করিয়েছিলেন নায়ক।

লাইভ শো’য়ের ১ ঘণ্টা ১৭ মিনিটের ভিডিওর ৩৪ মিনিটে রুবি বলেন, ‘সামিরা আমাকে বলেছিল যে শাবনূরের সঙ্গে ইমনের (সালমান শাহ’র) এফেয়ার ছিল। শাবনূর প্রেগনেন্টও হয়েছিল। সিঙ্গাপুরে নিয়ে ইমন তার অ্যাবোর্শন করিয়েছে। এগুলো সব সামিরার কাছ থেকে শুনেছি।’

তবে এই বিষয়ে মুখ খুলেন নায়িকা শাবনূর। রুবির ইন্টারভিউ সম্পর্কে তিনি অজ্ঞাত থাকলেও এমন কথায় প্রথমে কিছুটা অবাক হয়েছেন। শাবনূর বলেন,‘আমি আসলে তার (রুবির) ইন্টারভিউটি দেখিনি। তাই আসলে কিছু বলতে পারছি না। আমাকে দেখতে হবে। তারপর বলতে হবে। তবে এগুলো সে কেন করছে, কী কারণে করছে, সেগুলো আগে জানা দরকার। আর তদন্ত হওয়া উচিত। এগুলো সে কেনো এমন করছে। কে কী বললো এসব নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় আমার নেই। যারা সালমান শাহর বিষয়টির তদন্ত করছেন। তারাই একদিন না একদিন তদন্ত শেষে বিষয়টির সুরহা করবেন। এর চেয়ে আর বেশি কিছু বলার নাই। সত্যি কখনও চাপা থাকে না।’

শাবনূর গর্ভবতী ছিলেন সালমানের বাচ্চার এবং তার গর্ভপাত করিয়েছেন সালমান শাহ্‌ নিজেই রুবির এমন দাবিকে নাকোচ ও বানোয়াট বলে অভিহীত করেন অভিনেত্রী।

তিনি বলেন,‘রুবি যদি এ ধরনের বানোয়াট মিথ্যা কথা বলে থাকে এটা খুবই দুখ:জনক। তিনি কেনো বানিয়ে বানিয়ে এ ধরনের মিথ্যা কথা বলছেন তা আমার বোধগম্য নয়। আমি নিজেই বুঝতেছি না। কেন তিনি আমাকে জড়িয়ে এ ধরনের কথাগুলো বলেছেন?। তবে আমি এটুকু বলতে পারি তার দাবি সত্যি নয়।’

রুবির কথামতে সামিরা ও শাবনূরের সম্পর্কের ব্যাপারে কথা বলেন শাবনূর। নায়িকা বলেন, ‘সামিরাকে (সালমান শাহর স্ত্রী) তো আমি অনেক পছন্দ করি। আমি যখন সালমান শাহর সঙ্গে শুটিং করতাম সামিরা তখন সব সময় ছবির শুটিং ইউনিটে থাকত। আর ওকে ছাড়া সালমান কখনও আমার শুটিং ইউনিটে আসেনি। আর সামিরা রুবিকে এরকম কিছু বলতে পারে বলে আমার মনে হয় না। ওকে আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনি। ও ভালো একটা মেয়ে। সে যদি এরকম বাজে বাজে কথা বলে জনগণের কাছে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করতেই থাকে। আমি মানহানির মামলা করব। মানসম্মান রক্ষার জন্য মামলা করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না। তিনি মিথ্যা কথা এক জনের উপর চাপিয়ে দিচ্ছেন। বিষয়টা তো ঠিক নয়।’

‘সালমান-সামিরার দাম্পত্য কলহের জন্য দায়ী শাবনূর’ এমন কথা বেশ কয়েকবার উঠেছে। সালমান শাহের বাল্যবন্ধু মোস্তাক ও সামিরার বর্তমানে স্বামী মোস্তাক গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘সালমান-সামিরার মধ্যে শাবনূর তৃতীয় ব্যক্তি। তিনিও একটি রোল প্লে করেছেন। বিভিন্ন সময় তাকে নিয়ে ঝগড়া করতেন সালমান-সামিরা।’

এই বিষয়ে শাবনূরকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘সালমান শাহর বয়সের তুলনায় আমি তো ছোট ছিলাম। সে আমাকে পিচ্চি বলে ডাকত। যেমন-শুটিংয়ের সময় এই পিচ্চি এই দিকে আয়। মানে তুই বলে সম্বোধন করত। আবার বলত, পিচ্চি কাজটা ঠিকভাবে করিস। সালমান বলতো, দেখ-আমার কোন বোন নেই। তুই আমার বোন। আর সালমান শাহর মাও নিজে বিভিন্ন সময় এ কথা সাক্ষাৎকারে বলেছেন।’

সহ-শিল্পী ও নায়কের অকালে চলে যাওয়া বাকিদের মত শাবনূরও মানতে পারেননি। এই নিয়ে শাবনূর বলেন, ‘সে আমার একজন ভাল সহ-শিল্পী ছিল। তাকে সম্মান করি। এখনও সবাই ওকে ভালোবাসে। আর কেউই এটা আশা করেনি। যে এভাবে ও চলে যাবে। একদিন না একদিন সাধারণ মানুষ ওর মৃত্যুর সত্য ঘটনা জানবেই। সবকিছুর একটা সুরহা হোক এটাই আমিও চাই।’

নায়কের হত্যার বিচার চেয়ে শাবনূর জানান তিনিও প্রিয় নায়কের মৃত্যুরহস্যের সমাধান চান।

কমেন্টস