দেশবাসীকে অনুরোধ, সামিরা ও তার পরিবার যেন পালাতে না পারে: সালমানের মা

প্রকাশঃ আগস্ট ৭, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

সবাই জানে আত্মহত্যা করেই মৃত্যু হয় চলচ্চিত্রে অমর নায়ক সালমান শাহ এর। মৃত্যুরহস্য এখনো খোলাসা হয়নি। নায়কের সাথে মূলত সেদিন কি হয়েছিল? আড়ালে থাকা এই সত্য আজ সোমবার ৭ই আগস্ট নতুন মোড় নিয়েছে। হঠাৎ জানা যাচ্ছে সালমানকে নৃসংশভাবে হত্যা করা হয়েছে যার একমাত্র জীবিত সাক্ষী নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও প্রকাশ করে সাহায্য চেয়েছেন এক প্রবাসী বাংলাদেশী রুবি নামের মহিলা। যার জবাবে সালমান শাহের মা সাহায্য চেয়েছেন। নীলা চান এই ভিডিওটি শুধুমাত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নয় বরং সমগ্র প্রচার করা হোক এবং ভাইরাল হক। সামিরার পরিবারও যেন দেশ থেকে বেরোতে না পারে সে ব্যাপারেও তিনি সাহায্য চান।

রুবি ভিডিওতে জানান, ‘সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই, সালমান শাহ খুন হইছে। আমার হাজব্যান্ড করাইছে এটা আমার ভাইরে দিয়ে, সালমানের স্ত্রী এটা সামিরার ফ্যামিলি করাইছে। আর সব ছিল চাইনিজ মানুষ।’

সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরীর লন্ডনে আছেন বর্তমানে। এই ভিডিও ও সালমানের খুন নয়ে তিনি একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে বলেন, ‘প্রিয় দেশবাসী। আমাকে সাহায্য করুন। দেখুন, রুবি সুলতানার স্বীকারোক্তি। কীভাবে সালমানকে হত্যা করা হয়েছে। যেভাবে পারেন এফবিআইকে জানান, বাংলাদেশের সকল চ্যানেলকে অনুরোধ করছি রুবির স্বীকারোক্তিটা চালিয়ে দেন। প্রিয়জন, খেয়াল রাখবেন এই নিউজের পর অনেকে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে। শান্তভাবে কাজ করবে। সালমানের স্ত্রী সামিরা ও তার পরিবার যেন দেশ থেকে পালিয়ে যেতে না পারে সে দিকেও নজর দিন।’

দেশবাসীকে অনুরোধ, সামিরা ও তার পরিবার যেন পালাতে না পারে: সালমানের মা

রুবিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘রুবি তুমি এতো কথা বলতে পারছ তাহলে এফবিআই বা আমেরিকার পুলিশকে জানাতে পারছ না কেন, তারা যাতে তোমাকে নিরাপদে রাখে। তোমার ফোন নাম্বার দাও।’

জানা যায়, রুবি চৌধুরী এখন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায় রয়েছে। রুবির দাবি, তিনি একমাত্র জীবিত ব্যক্তি যার কাছে প্রমাণ আছে, সালমান আত্মহত্যা করেননি, তাকে হত্যা করা হয়েছে। সালমান শাহকে খুনে জড়িত ছিলেন তার স্বামী যিনি চীনা নাগরিক চ্যান লিং চ্যান ওরফে জন চ্যান নামে বাংলাদেশে পরিচিত। ধানমন্ডির সাংহাই রেস্টুরেন্টের মালিক তিনি। জীবন হারানোর আশঙ্কায় আছেন তিনি। তার দাবি, সালমান শাহ্কে যে হত্যা করা হয় তার প্রমাণ তার কাছে আছে। তাই তাকেও মেরে ফেলা হতে পারে। কারণ আবার সালমানের মৃত্যুরহস্য কেস ওপেন হইছে। সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরীকে উদ্দেশ্য করে রুবি বলেন এই খুনের বিষয়ে তিনি বিস্তারিত জানেন। বিষয়টি যেভাবেই হোক আবার যেন তদন্তের ব্যবস্থা করা হয়। তিনি যেভাবেই পারেন আদালতে সাক্ষী দেবেন।

Advertisement

কমেন্টস