সত্যি হচ্ছে নিলয়-শখের ডিভোর্সের গুঞ্জন, অপেক্ষা আনুষ্ঠানিকতার

প্রকাশঃ জুলাই ১৭, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সকল জল্পনা কল্পনা ও গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ভেঙ্গেই যাচ্ছে শখ-নিলয়ের বৈবাহিক সম্পর্ক। ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি পারিবারিকভাবে বিয়ে পিঁড়িতে বসেছিলেন অভিনেতা নিলয় ও অভিনেত্রী শখ। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই শোনা যায় তাদের দুরত্ব বাড়ার গল্প-গুজব।

শিগগির দুজনের আনুষ্ঠানিক ছাড়াছাড়ি হয়ে যাবে বলে সূত্রে জানা গেছে। এদিকে আনিকা কবির শখ বর্তমানে পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়া মায়ের বাড়িতে অবস্থান করছেন। শখের সাথে আলাপকালে তিনি এই বিষয়ে কথা বলতে নারাজ। তবে স্পষ্ট করলেন নিলয়ের সাথে তিনি আর থাকছেন না। সম্পর্কের বিষয়ে কথা বলতেও বিরক্তি প্রকাশ করলেন।

এদিকে আজ মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই দাম্পত্য জীবন ভেঙে যাওয়ার কথা স্বীকার করে নিলেন নিলয়। তিনি বলেন, আমাদের মধ্যে এখনও ডিভোর্স হয়নি, প্রক্রিয়া চলছে। নানা কারণেই আমরা দীর্ঘদিন ধরে আলাদা থাকছি।

নিলয় আরও জানান, শখ তার উত্তরার বাসা ছেড়ে পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়ার বাবার বাসায় চলে গেছেন।

সম্প্রতি তাদের বিচ্ছেদের বিষয়ে প্রথম প্রশ্ন তৈরি করে শখের ফেসবুকের রিলেশনশিপ স্টেটাস।এরপর শুরু হয় শখ-নিলয়ের ডিভোর্সের গুঞ্জন। কিন্তু সেই গুঞ্জন পুরোপুরি সত্য না হলেও এখন সত্যের পথে। ইতিমধ্যে দুজনের আলাদা থাকার বিষয়টি শখ নিজেই সরাসরি না বললেও তার জীবনযাপন সেটা স্পষ্ট করেছিল। কিন্তু নিলয় স্বীকার করে নিলেন সে কথা।

জানা গেছে, ডিভোর্স এখনো না হলেও ডিভোর্স ফাইল চূড়ান্ত। প্রক্রিয়া আনুষ্ঠানিকতার দিকে এগোচ্ছে। অথচ চলতি বছর বিবাহবার্ষিকীতে ওমরায় গিয়েছিলেন এই তারকা জুটি। সোশাল মিডিয়ায় সেসব ছবি ছড়িয়েও পড়েছিল। ভক্তরাও শুভকামনা জানিয়েছিলেন। দীর্ঘ দাম্পত্যজীবনের জন্য প্রার্থনাও করেছিলেন। কিন্তু তারা নিজেরাই হয়তো সম্পর্কে থাকতে চাইছেন না।

প্রসঙ্গত, আনিকা কবির শখ ও নিলয়ের পরিচয় ঘটে মডেলিং করতে গিয়ে। বেসরকারি মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের একটি টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে অংশ নেন এই জুটি। দেশব্যাপী বেশ পরিচিত পেয়ে যান তারা। তখন থেকেই একসাথে পথচলা।

 

 

 

Advertisement

কমেন্টস