‘যৌন অক্ষমতার কারণেই আমি কার্লোসের কাছ থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছি’

প্রকাশঃ জুলাই ১১, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

গণমাধ্যমে কার্লোসের বিশেষ বান্ধবী হিসেবে নিজের নাম প্রচার হওয়ায় মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী সাবিনা রিমা। তিনি নিজেকে কার্লোসের একমাত্র বিবাহিত স্ত্রী দাবী করে বিয়েসহ নিজের কথার সত্যতা প্রমাণ করেন।

তবে ঘটনার সাথে সাথেই কেন মুখ খুলেননি এমন প্রশ্নের জবাবে সাবিনা বলেন, ‘দেখুন ঘটনার পরের দিনই বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখলাম আমাকে বিশেষ বান্ধবী পরিচয়ে উপস্থাপন করা হচ্ছে। প্রতিবাদ করতে গিয়েও করতে পারিনি। কাছের বন্ধুরা বলেছিল এ বিষয়ে চুপচাপ থাকতে। অন্যথায় বিতর্কিত এই ইস্যুতে নিজের নাম জড়িয়ে গেলে ক্যারিয়ার হুমকির মুখে পড়তে পারে। শেষ পর্যন্ত মুখ খুলতে বাধ্য হলাম। স্ত্রী হয়েও কেন আমাকে খারাপভাবে উপস্থাপিত হতে হবে?’

তবে বিবাহিত স্ত্রী হলেও বর্তমানে কার্লোসের সঙ্গে থাকছেন না সাবিনা। কয়েক মাস ধরেই আলাদা থাকছেন তারা। আলাদা থাকার কারণ হিসেবে সাবিনা বলেন, ‘কার্লোস যৌন সঙ্গমে অক্ষম। তাই যৌনশক্তি বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন ওষুধ ও ইয়াবা সেবন করতো। মাঝে মাঝে এসব করে আমার সঙ্গে খারাপ আচরণও করতো। ওর বাসায় এসব ওষুধও পাওয়া গেছে ওই ঘটনায় সময়ে। মূলত যৌন অক্ষমতার কারণেই আমি কার্লোসের কাছ থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছি।’

উল্লেখ্য, গৃহকর্মীকে নির্যাতনের ঘটনায় গত শুক্রবার কার্লোসকে পরীবাগের ফ্ল্যাট থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আদালতের নির্দেশে তাকে এক দিনের রিমান্ডে আনা হয়েছিল। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে কার্লোস তার অন্ধকার জগতের নানা চমকপ্রদ তথ্য জানান। বিদেশিরা তাকে চেনেন ঢাকার ইয়াবা ডন হিসেবে। অবৈধ মুদ্রা, হুন্ডি ও মাদক ব্যবসা, অসামাজিক কর্মকাণ্ডসহ অন্ধকার জগতের ডন ছিলেন সালেহ আহমেদ ওরফে কার্লোস। অঢেল টাকার সুবাদে কার্লোসের বিভিন্ন পার্টিতে যোগ দিতেন শোবিজ জগতের নামিদামি মডেল ও অভিনেত্রীরা। এদের নিয়ে দেশ-বিদেশে ঘুরতেন, উপভোগ করতেন কার্লোস।

Advertisement

কমেন্টস