জাদুকর ‘রাহুল’

প্রকাশঃ জুন ২৫, ২০১৭

কথায় কথায় ছন্দ তুলে অনেক গান লিখেছেন তিনি। দেশীয় গণ্ডী পেরিয়ে কাজ করেছেন বাইরের শিল্পীদের সাথেও। কথা হচ্ছে তরুণ লেখক ও গীতিকার রাকিব হাসান রাহুলকে নিয়ে। তার লেখা আলচিত গানগুল হলো – তাহসানের ‘প্রথম ভালোবেসে’, শুভমিতার ‘তুমিময় হোক সময়’, অদিতের ‘হারাবে কোথায়’, প্রীতমের ‘জাদুকর’, ‘মুখোশ’, লুৎফর হাসানের ‘তোমাকে জেনে’, ইলিয়াসের ‘ভাল্লাগেনা’, প্রীতম-নাওমির ‘আনন্দে নাচে এই মন’ ইত্যাদি। চলমান ক্যারিয়ার ও ব্যক্তি রাহুলকে নিয়ে কথা হলো বিডিমর্নিং এর সাথে। সাক্ষাতে ছিলেন- সুমাইয়া আকরাম।

কাজের শুরুর দিকটা কেমন ছিল?

রাহুলঃ ইন্ডাস্ট্রিতে প্রথম দিকটা শুরু হয় ২০১১ তে। তখন শুরু ধীরে ধীরে পথচলায় প্রায় শ’ খানেক গান প্রকাশিত। এখন বেশ নিয়মিত লিখছি।

কাজে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন কি ক্ষেত্রে?

রাহুলঃ সবার সাথে কাজ করতেই ভালো লাগে। তবে প্রীতমের সাথে আমার সিংক্রোনাইজেশনটা বেশ। ওর সুর কী বলতে চাচ্ছে সেটা খুব সহজেই বলতে পারি। আর অদিত দাদার সুর গুলোকে আমি একটু বেশীইই ভয় পাই। এতো চমৎকার ক্রিয়েশন দাদার, আমি লিখতে গেলেই খুব ভয়ে থাকি। যদি সুরের আবেদন নষ্ট হয়ে যায়! তবে দাদার সাথে করা কাজগুলো অন্য সবার চাইতে আলাদা হয়। এছাড়া সজীব দা’র সাথে কাজগুলো হয় খুব মজা করে। মজা করে কারণ, ওনাকে এখনো কোনো লিরিক দেইনি, যে কাজগুলো হয়েছে সব আমার ফেসবুক স্ট্যাটাস।

হুমায়ুন ভাইয়ের সাথে আমার প্রথম কাজ আসছে এই ঈদে। আশা করি ওনার সাথেও সহজে কাজ করা যাবে। আসলে কাজ করার ক্ষেত্রে সিংক্রোনাইজেশন অনেক বড় ব্যাপার। হুট করে দুই চিন্তাধারার দুইজন একসাথে কাজ করতে গেলে ঝামেলা হয়। তাই আগে নিজেদের বুঝতে হবে। এটা আমার ধারণা।

কাজের ক্ষেত্রে কখনো কোন বিপত্তিতে জড়িয়েছেন? কিভাবে সেটা কাটিয়ে ওঠেন?

রাহুলঃ আমি অলস প্রকৃতির মানুষ। একদিনে যে সব পেয়ে যাবো এমন কোনো চিন্তাভাবনা নেই। সময়কে আমি আমার বন্ধু জানি। তাই যা হবার সময়মত হবে। তাই সমস্যা থাকলেও কোনো সমস্যাকেই আমি বড় করে দেখিনা। সময় এবং প্রকৃতি সব ঠিক করে দিবে।

ঈদের কাজ নিয়ে কিছু বলুন…

রাহুলঃ ঈদে আমার কথায় প্রীতম হাসানের ‘জাদুকর’ গানের মিউজিক্যাল ফিল্ম আসতেছে গানচিলের ব্যানারে। এটি নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু ভাই. ঈগল মিউজিক থেকে আসছে বলিউডের আর্টিস্ট শালমালির ‘একা একা বহুকাল’ শিরোনামের গান। এটির সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন আহম্মেদ হুমায়ুন ভাই। আদি’র কণ্ঠে ‘বর্ষা’ গানের মিউজিক ভিডিও আসবে। এটি একটি শর্টফিল্মের গান। শর্টফিল্মের নামও বর্ষা। এতে অভিনয় করেছেন তৌসিফ মাহবুব এবং ঈশিকা খান। এই গানটি সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন রোমান্স।

শালমালির সাথে কাজের অভিজ্ঞতাটা কেমন ছিল?

রাহুলঃ ভালো কাজ করতে সবারই ভালো লাগে। আমারও একই রকম। কমন অনুভূতি….

দেশের বাইরের শিল্পীর সাথে কাজ করে কি মনে হচ্ছে?

রাহুলঃ এটা একটা চমৎকার প্রাপ্তি। শালমালি বেশ জনপ্রিয় শিল্পী। তার সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতাটা দারুণ। এর আগে আমার লেখা গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় শুভমিতা। সেই গানটি বেশ আলোচিত হয়েছে।

‘জাদুকর’ নিয়ে নিয়ে কিছু বলুন

রাহুলঃ জাদুকর গানটি গত বছরের। তখন অডিও প্রকাশ পেয়েছিলো। এবার প্রকাশ পাচ্ছে মিউজিক্যাল ফিল্ম। জাদুকর আমার জীবনের অন্যতম প্রাপ্তি। আমাদের ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে অনেকেরই অভিযোগ যে নতুন কিছু নেই, নতুন কিছু নেই। এবার এই অভিযোগের অবসান ঘটবে জাদুকর দিয়ে।

সহশিল্পীদের নিয়ে কেমন অভিজ্ঞতা?

রাহুলঃ প্রীতম অনবদ্য কাজ করেছে। বরাবরের মতোই প্রশংসনীয়। আর ভিডিওটিকে অংশু ভাই অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছেন। দর্শক শ্রোতাদের ভালো কিছু উপহার দেওয়ার জন্য আমরা দীর্ঘ এক বছর সময় নিয়েছি মিউজিক ভিডিওর প্ল্যানিংয়ে।

সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

রাহুলঃ আপনাকেও ধন্যবাদ।

Advertisement

কমেন্টস