গোটা কলকাতায় শুধু এক সিনেমা !

প্রকাশঃ এপ্রিল ২৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং বিনোদন ডেস্ক-

ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে এক অবাক করা ঘটনা, বিরল তো বটেই। আগে কখনো কোন সিনেমা নিয়ে এত উত্তেজনা, অপেক্ষা ও এত উন্মাদনা দেখা যায়নি। এমনটা হচ্ছে গতকাল শুক্রবার ২৮ এপ্রিল মুক্তি পাওয়া ‘বাহুবলী টু’ নিয়ে। এ সিনেমা মুক্তির আগেই যত রেকর্ড ভেঙ্গেছে না জানি মুক্তির পর কী হবে!

ঠিক তাই দেশটির চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সব চেয়ে বেশি দামে টিকেট বিক্রি হচ্ছে এই সিনেমার। অগ্রিম টিকিটও শেষ। প্রেক্ষাগৃহের সামনে দীর্ঘ লাইন। প্রথম দিনেই আয় ১০০ কোটির অধিক। তবে এই চিত্র শুধু ভারতের একটি রাজ্যে নয়। সমগ্র ভারতজুড়ে, শহর ও গ্রামগুলিতে।

‘বাহুবলী টু’র জন্য আগ্রহ এতটাই তুঙ্গে যে কলকাতার বিভিন্ন মাল্টিপ্লেক্সে ভিড় সামলাতে প্রদর্শনীর সময় এগিয়ে আনা হয়েছে। অনেক জায়গায় মর্নিং শো শুরু হয়েছে নির্দিষ্ট সময়ের বেশ আগে। শোয়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে আনা হয়েছে বিভিন্ন রেস্তোরাঁর সময়সূচি।

কলকাতায় সকাল আটটা থেকে অনেক প্রেক্ষাগৃহে ‘বাহুবলী টু: দ্য কনক্লুশন’ দেখানো হচ্ছে। তামিল ও তেলেগু ভাষার চলচ্চিত্র হলেও ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে হিন্দিতে ভাষান্তর করে এটি দেখানো হচ্ছে।

কলকাতার অন্যতম মাল্টিপ্লেক্স লেক মল সিনেপলিস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সব ক’টি স্ক্রিনে দিনে মোট ১৬টি শো চালাবে তারা। মূল কথা কলকাতায় এমন কোনো প্রেক্ষাগৃহ নেই যেখানে বাহুবলী প্রদর্শিত হচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, আড়াই মিলিয়ন রুপি খরচ করে তৈরি রূপকথা ও পৌরাণিক চলচ্চিত্রের নায়ক তামিল অভিনেতা প্রভাস। ২০১৫ সালে নির্মিত হয়েছিলো ‘বাহুবলী’ সাড়া জাগিয়েছিলো। দ্বিতীয় ও শেষ কিস্তি আরও বেশি দর্শক টানছে। একটি দক্ষিণ ভারতীয় ভাষার চলচ্চিত্র গোটা ভারতে এভাবে সাড়া জাগাতে পারে, এটা এক কথায় অকল্পনীয় ছিল তবে এখন তা সত্য।

কমেন্টস